১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং বগুড়ায় উত্তরের বিভিন্ন সীমান্ত পথে আগ্নেয়াস্ত্র আসছে গডফাদার ধরাছোঁয়ার বাইরে
Mountain View

বগুড়ায় উত্তরের বিভিন্ন সীমান্ত পথে আগ্নেয়াস্ত্র আসছে গডফাদার ধরাছোঁয়ার বাইরে

0
image_pdfimage_print

নিউজবিডি৭১ডটকম
বগুড়া ব্যুরো : উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন সীমান্ত পথে বগুড়ায় নানা জাতের আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি আসছে। এসব অস্ত্র শুধু সন্ত্রাসীদের কাছে নয়; রাজনীতিকদের হাতেও শোভা পাচ্ছে। র‌্যাব, পুলিশ ও আর্মড পুলিশ সদস্যদের তৎপরতায় কিছু আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার এবং বহনকারীরা গ্রেফতার হলেও গডফাদাররা ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকছে। কেউ গ্রেফতার হলেও তারা আইনের ফাঁক গলিয়ে জামিনে ছাড়া পাচ্ছেন।

পুলিশ, র‌্যাব ও আর্মড পুলিশের নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, বাংলাদেশের সাথে প্রতিবেশী দেশের চার হাজার ৪২৭ কিলোমিটার সীমান্ত রয়েছে। সবস্থানে বিজিবি সদস্যরা মোতায়েন না থাকায় চোরাকারবারীদের সহযোগিতায় বাংলাদেশে শুধু আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি নয়; ফেনসিডিলসহ বিভিন্ন মাদক আসছে। সীমান্তে ৩৫ হাজার থেকে ৭০ হাজার টাকায় বিভিন্ন দেশের নাম খোদাই করা পিস্তল ও রিভলবার বিক্রি হয়। ৩-৪ হাজার টাকায় এলজি (পাইপ গান) ও শার্টারগান পাওয়া যায়। এছাড়া ৫০০ থেকে হাজার টাকায় এক রাউন্ড গুলি মিলছে। চোরাকারবারীদের হাত গলিয়ে এসব আগ্নেয়াস্ত্র বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সন্ত্রাসী এবং পেশাদার সন্ত্রাসীদের কাছে চলে আসছে। শুধু তাই নয় ছিনতাইকারীদের কাছেও এখন আগ্নেয়াস্ত্র থাকে। এসব আগ্নেয়াস্ত্র কোন অপরাধে বা প্রতিপক্ষের উপর ব্যবহার করা হয়।

সূত্রটি আরও জানায়, শুধু পুলিশের অভিযানে চলতি বছরের ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত ১১টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ১৯ রাউন্ড গুলি উদ্ধার হয়েছে। আর গত তিন বছরে ৯০টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার হয়। এ সময় ৬৩টি ম্যাগজিনসহ পাওয়া গেছে ৭৭৯ রাউন্ড গুলি। গ্রেফতার করা হয়েছে অন্তত ২০০ ব্যক্তিকে। উদ্ধার করা অস্ত্রশস্ত্র হলো ৫১টি বিদেশী পিস্তল, ৭টি দেশী পিস্তল, ১০টি রিভলবার, ৮টি পাইপগান, ৫টি দেশী শার্টারগান, ১টি এসএমজি, ১টি জার্মান স্পোর্ট রাইফেল, ৩টি দেশী শুটারগান, ১টি দেশী এলজি, ১টি দেশী দ্ইু নালা বন্দুক, ২টি দেশী এক নালা বন্দুক, ৬৩টি ম্যাগজিন, ৭৭৯ রাউন্ড গুলি, ৪৪টি চাপাতি, ৯টি তরবারি, ৬৩টি ছোরা, ১৮২টি বিদেশী চাকু, ৪৯টি রামদা, ২১টি ডেগার, ১৯টি হাসুয়া, ৬টি চাইনিজ কুড়াল। এছাড়াও র‌্যাব এবং আর্মড পুলিশও কিছু গুলিভর্তি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করেছে।

র‌্যাব-১২ বগুড়া স্পেশাল কোম্পানীর সদস্যরা ২৮ এপ্রিল সকালে শহরতলির বুজরুকবাড়িয়া পূর্বপাড়ায় একটি বাড়ি থেকে আমেরিকায় তৈরি ৭.৬৫ ক্যালিবারের একটি পিস্তল উদ্ধার করেছেন। এ সময় অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী রাসেল প্রামানিক (২০) ও মোক্তার হোসেনকে (২৫) গ্রেফতার করা হয়। ডিবি পুলিশ ২৭ এপ্রিল সন্ধ্যা শহরের ফুলবাড়ি এলাকা থেকে এক রাউন্ড গুলিভর্তি বিদেশী পিস্তলসহ তৌহিদ হোসেন বুবুল (৩৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। চতুর্থ আর্মড পুলিশের সদস্যরা গত ২০ এপ্রিল সকালে শহরের সুত্রাপুর এলাকায় একটি বাড়ি থেকে পাঁচ রাউন্ড গুলিভর্তি একটি বিদেশী পিস্তলসহ গোলাম আহাদ নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছেন। ডিবি পুলিশ ১৯ এপ্রিল দুপুরে শিবগঞ্জের ভাইয়ের পুকুর বাজারে একটি ঘর থেকে ৩ রাউন্ড গুলিভর্তি একটি বিদেশী পিস্তল উদ্ধার করেছে। এ সময় সেলিম মোল্লা (৩২) ও তার সহযোগী হারুন অর রশিদ মোল্লাকে (৩৫) গ্রেফতার করে। এর আগে গত ৯ এপ্রিল সদর থানা পুলিশ শহরের জলেশ্বরীতলায় মাহিদ নামে এক অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করতে গেলে অপহরনকারীদের সাথে গুলিবিনিময় নয়। তখন পুলিশ দুই রাউন্ড গুলিভর্তি বিদেশী পিস্তলসহ ফেরদৌস রহমান ফিজু নামে অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে।

অভিযোগ রয়েছে, আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা আগ্নেয়াস্ত্র হেফাজতে রাখা ও বহনকারীকে গ্রেফতার করলেও পরবর্তীতে অস্ত্রের উৎস এবং গডফাদারদের গ্রেফতারে কোন আগ্রহ দেখায় না। ফলে তারা ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যায়। বগুড়া পুলিশের এএসপি (মিডিয়া) গাজিউর রহমান সাগর জানান, বিভিন্ন সীমান্ত পথে অস্ত্র ও গুলি আসে। তাদের (পুলিশ) তৎপরতায় বর্তমানে অস্ত্রের চালান কমেছে। তিনি আরও জানান, কিছুদিন আগে শিবগঞ্জে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র মেরামত করতে গিয়ে এক ব্যক্তি নিহত হন। পরে শিবগঞ্জের রিজু নামে এক অস্ত্রধারীকে গ্রেফতার ও তার বাড়ি থেকে গুলিভর্তি দুটি বিদেশী পিস্তল উদ্ধার করা হয়। ওমর খৈয়াম রোপন নামেও এক অস্ত্রধারী গডফাদারকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। কিন্তু আইনের ফাঁক দিয়ে অস্ত্রধারীরা জামিনে ছাড়া পেয়ে যান। র‌্যাব-১২ বগুড়া স্পেশাল কোম্পানীর অধিনায়ক লে. কমান্ডার আলী হায়দার চৌধুরী জানান, চোরাকারবারীদের মাধ্যমে বিভিন্ন সীমান্ত পথে আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি আসে। গত দু’মাসে তার অভিযানে দু’টি আগ্নেয়াস্ত্র, ২ রাউন্ড গুলি ও ১২টি ককটেল উদ্ধার হয়েছে। তিনি আরও জানান, আগ্নেয়ান্ত্র ও মাদকের বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

নিউজবিডি৭১/আর কে/নাসিম/২৯এপ্রিল ২০১৫

Share.

Leave A Reply