১৮ই জুলাই, ২০১৮ ইং সংসদে হট্টগোল, দেশভক্তি শেখাবেন না- মোদি
Mountain View

সংসদে হট্টগোল, দেশভক্তি শেখাবেন না- মোদি

0
image_pdfimage_print
 সংসদে হট্টগোল, দেশভক্তি শেখাবেন না- মোদি


সংসদে হট্টগোল, দেশভক্তি শেখাবেন না- মোদি

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মিরের হুররিয়াত নেতা মাশারাত আলমকে মুক্তি দেয়া নিয়ে আজ (সোমবার) সংসদে ব্যাপক হৈ হট্টগোল হয়েছে। সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভা এবং নিম্নকক্ষ লোকসভায় এ প্রসঙ্গে সরকারকে চেপে ধরেন বিরোধী দলের এমপিরা।

লোকসভায় এ প্রসঙ্গে কংগ্রেসসহ অন্য বিরোধীরা আলোচনার দাবি জানান। কিন্তু স্পীকার সুমিত্রা মহাজন আগে থেকে নোটিশ না দেয়ায় এ নিয়ে আলোচনা করার অনুমতি দেন নি। কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে দাবি করেন, মুফতি মুহাম্মদ সাঈদ একা এ ধরণের সিদ্ধান্ত নেন নি, নিশ্চয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে তার।

বিরোধী দলের এমপিদের ব্যাপক ক্ষোভের মুখে

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং সরকার পক্ষে বক্তব্য দিতে ওঠেন। তিনি বলেন,‘নাগরিকদের নিরাপত্তা নিয়ে সরকার কোনো সমঝোতা করবে না। মাশারাতের বিরুদ্ধে ২৭ টি অপরাধের মামলা আছে। সব মামলায় জামিন পেয়েছেন তিনি। তাকে ৮ বার আটক করা হয়েছে এর আগে। যদিও রাজ্য সরকারের দেয়া রিপোর্টে আমরা সন্তুষ্ট নই। তাদের কাছে এনিয়ে বিস্তারিত ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। সেখান থেকে বিস্তারিত ব্যাখ্যা এলেই পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।’সরকার পক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ ঘটনায় সাফাই দিতে উঠলে বিরোধীরা প্রধানন্ত্রীর বক্তব্য দাবি করেন। বিরোধীদের শোরগোলের জেরে রাজনাথ সিংকে প্রতি পদে পদে জেরবার হতে হয়। স্পীকার সুমিত্রা মহাজনকে সভা শান্ত করতে রীতিমত হিমশিম খেতে হয়। বিরোধীদের উদ্দেশ্যে বারবার শান্ত হওয়ার আবেদন জানালেও তার এই আবেদনে বিশেষ কান দেন নি বিরোধীরা।

স্পীকার বিরোধী এমপিদের উদ্দেশ্যে বলেন,‘আপনারা বসুন, দয়া করে বসুন। আলোচনার জন্য আগে থেকে নোটিশ দেয়া উচিত। আমি দুঃখিত, এটা আলোচনার বিষয় নয়।’

কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গের উদ্দেশ্যে স্পীকার বলেন,‘খাড়গে জী, প্লিজ, হাত জোড় করছি। এই বিষয়টি মুখ্য হলে আপনাদের নোটিশ দেয়া উচিত ছিল।’

পরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে এ বিষয়ে সংসদে বিবৃতি দিতে হয়। বিরোধীদের ক্ষোভের মুখে তাকেও বেশ কয়েকবার থেমে যেতে হয়। তিনি বলেন, ‘জম্মু-কাশ্মিরে সরকার গঠন হওয়ার পর থেকে সেখানে যে কাজকর্ম হছে তা ভারত সরকারের সঙ্গে আলোচনা করে বা জানিয়ে হচ্ছে না। রাজ্যে যা হচ্ছে তাতে আমরা একমত নই। দেশের একতা নিয়ে দুনিয়াতে ভুল বার্তা যাওয়া উচিত নয়। দয়া করে আমাদের দেশভক্তি শেখাবেন না। রাজ্য থেকে এনিয়ে বিস্তারিত ব্যাখ্যা আসার পরে হাউসকে তা জানানো হবে। দেশের একতা এবং অখণ্ডতা নিয়ে কোনো সমঝোতা করা হবে না।’ সংবিধানের মর্যাদা রক্ষায় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলেও সংসদকে জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

জম্মু-কাশ্মিরের মুখ্যমন্ত্রী মুফতি মুহাম্মদ সাঈদের উদ্যোগে শনিবার মুক্তি দেয়া হয় জেলবন্দি হয়ে থাকা হুররিয়াত নেতা মাশারাত আলম। এর পর থেকেই বিভিন্ন মহল থেকে এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধীতা করা হয়েছে। জননিরাপত্তা আইনে এত দিনবন্দি ছিলেন মাশারাত আলম।

তার বিরুদ্ধে ২০০৮ এবং ২০১০ সালে কাশ্মির উপত্যাকায় পাথর ছুঁড়ে বিক্ষোভে নেতৃত্ব দেয়ার অভিযোগ রয়েছে। তাকে ২০১০ সালে গ্রেফতার করা হয়।

নিউজবিডি৭১/ আর কে/৯ মার্চ ২০১৫

Share.

Leave A Reply