১২ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং ফারজানা-সারওয়ার্দী : বিয়ের পিঁড়িতে দুই জগতের দুই তারকা
Mountain View

ফারজানা-সারওয়ার্দী : বিয়ের পিঁড়িতে দুই জগতের দুই তারকা

0
image_pdfimage_print

নিউজবিডি৭১ডটকম 
ঢাকাআবারও বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন জনপ্রিয় উপস্থাপিকা ফারজানা ব্রাউনিয়া। পাত্র লে. জে. হাসান সারওয়ার্দী। ব্রাউনিয়ার ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র খবরটি নিশ্চিত করেছেন। আজ শনিবার (২৪ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি কনভেনশন সেন্টারে দুজনেরই গায়েহলুদের অনুষ্ঠান হওয়ার কথা। আগামী সোমবার (২৬ নভেম্বর) সেনাকুঞ্জে তাদের বিয়ের মূল অনুষ্ঠান হবে।

ব্রাউনিয়ার ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে, দুই পরিবারের সম্মতিতে বেশ জাঁকজমক ভাবেই এই বিয়ের অনুষ্ঠান হবে। এরই মধ্যে বিয়ে ও গায়েহলুদের কার্ড আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধু-বান্ধবদের কাছে পৌঁছেছে।

ফারজানা ব্রাউনিয়া এর আগে আরো দুইবার বিয়ে করেছিলেন। পূর্বের দুই সংসারে তাঁর দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

ব্রাউনিয়া বলেন, আমাদের মধ্যে পরিচয় কাজের সূত্রে। ২০১৫ সালে মিরপুরে ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজে (এনডিসি) দুই সপ্তাহব্যাপী ক্যাপস্টোন কোর্স করার সময় সারওয়ার্দীর সাথে পরিচয়। এরপর কাজ করতে গিয়ে সম্পর্ক তৈরি হয়। পরে দুই পরিবারের মত নিয়ে গত ৬ নভেম্বর আকদ আর ১৬ নভেম্বর বিয়ে নিবন্ধন করা হয়।

আগামী ২৬ নভেম্বর বিবাহোত্তর সংবর্ধনা হবে বলে জানান তিনি। এর মধ্যে গত ২০ নভেম্বর তারা সাভার গলফ ক্লাবে যান বিয়ের ফটোসেশনে অংশ নিতে।

চৌধুরী হাসান সারওয়ার্দী বলেন, আশা করছি আমরা দুজনের পাশাপাশি দুই পরিবারও সুখী হবে।

তিনি জানান, আগের স্ত্রীর সাথে বিচ্ছেদ হয়ে গেছে। দীর্ঘ সময় তারা আলাদা থাকছিলেন। তার এক ছেলে ও এক মেয়ে মায়ের সাথে বিদেশে থাকেন।

রানা প্লাজা ধসের পর নবম পদাতিক ডিভিশনের জিওসি হিসেবে উদ্ধার কাজের নেতৃত্ব দিয়ে আলোচনায় আসেন চৌধুরী হাসান সারওয়ার্দী। ২৬ মার্চ ‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ আয়োজনের সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন তিনি। এরপর তিনি আর্টডকের জিওসি ও ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের কমান্ড্যান্ট হন। সেখান থেকে এ বছরের ১ জুন অবসরে যান। এর আগে তিনি আনসার ও ভিডিপি এবং এসএসএফের মহাপরিচালক এবং সেনা গোয়েন্দা বিভাগের পরিচালকসহ গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন। এখন দুটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের পরামর্শক হিসেবে কাজ করছেন।

২০০০ সালে বাংলাদেশ টেলিভিশনে সংবাদ পাঠিকা হিসেবে ব্রাউনিয়ার শোবিজ যাত্রা শুরু হয়। তখন তিনি ইংরেজি সংবাদ পড়তেন। তবে ফারজানা ব্রাউনিয়া নামটি দেশজুড়ে আলোচনায় আসে ২০০৪ সালে দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত ‘লাক্স চ্যানেল আই সুপারস্টার’ প্রতিযোগিতায় ভিন্নধর্মী উপস্থাপনার পর। এ ছাড়াও তাঁর উপস্থানায় জনপ্রিয় অনুষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে গেম শো লেটস মুভ, রাজনীতিভিক্তিক শো হাঁড়ি কড়াই রান্নার লড়াই, চ্যানেল আই সেরা কণ্ঠ অন্যতম।

নিউজবিডি৭১/বিসি/নভেম্বর ২৪, ২০১৮

Share.

Comments are closed.