১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং মধ্যবর্তী নির্বাচনে হাল ছেড়ে দিচ্ছেন ট্রাম্প?
Mountain View

মধ্যবর্তী নির্বাচনে হাল ছেড়ে দিচ্ছেন ট্রাম্প?

0
image_pdfimage_print

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায় গতকাল শুক্রবার এক নির্বাচনী সভায় ভাষণ দেওয়ার সময় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মুখ ফসকে বলে ফেলেছেন, মঙ্গলবারের মধ্যবর্তী নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টি সম্ভবত প্রতিনিধি পরিষদ হারাতে যাচ্ছে। তবে সিনেট তারা ঠিকই ধরে রাখবে। ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা খুব ভালো করছি, খুবই ভালো। তবে এমন ঘটনা ঘটতেও পারে।’

নিজ সমর্থকদের মনোবল চাঙা রাখতে ট্রাম্প আরও বলেন, চিন্তার কিছু নেই, সব ঠিক হয়ে যাবে। তিনি বলেন, ‘সারা জীবন আমি বলে এসেছি, চিন্তার কিছু নেই। আমি ঠিকই একটা কিছু ব্যবস্থা করব।’

অধিকাংশ জনমত জরিপেই দেখা যায়, ট্রাম্পের এমন অনুৎসাহী বক্তব্যের কারণ কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের নিয়ন্ত্রণ হাতবদল হতে যাচ্ছে। অত্যন্ত নির্ভরশীল হিসেবে স্বীকৃত নির্বাচনী বিশ্লেষক নেট সিলভার ও তাঁর ওয়েবসাইট ফাইভ থার্টি এইটের প্রস্তুত মডেল অনুসারে প্রতিনিধি পরিষদ ডেমোক্র্যাটদের হাতে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা ৮০ শতাংশের বেশি। একই মডেল অনুসারে রিপাবলিকানরা সিনেটে তাঁদের নিয়ন্ত্রণ শুধু বজায়ই রাখবেন না, সম্ভবত দুটি বা তিনটি অতিরিক্ত আসন দখল করবেন।

এক মাস আগেও ট্রাম্প বলছিলেন, ডেমোক্র্যাটদের সমর্থনে নীল ঢেউ নয়, রিপাবলিকানদের সমর্থনে একটি লাল ঢেউ আসছে। তিনি একাই রিপাবলিকান ভোটারদের চাঙা করতে পারেন—এই বিশ্বাস থেকে এক মাস ধরে সারা দেশ চষে বেড়াচ্ছেন। নির্বাচনের আগের এক সপ্তাহ তিনি মোট ১১টি নির্বাচনী সভায় অংশ নিচ্ছেন। অনেকে বলছেন, ট্রাম্পের ব্যক্তিগত আবেদনের কারণে রিপাবলিকান ভোটারদের মধ্যে মধ্যবর্তী নির্বাচনে ভোট প্রদানের ব্যাপারে উৎসাহ বাড়ছে। আগাম ভোটে অনেক জায়গায় তাঁদের অংশগ্রহণ ডেমোক্র্যাটদের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও নির্বাচনী বিপর্যয় এড়ানো তাঁদের পক্ষে সম্ভব হবে না।

ট্রাম্প বলেছেন, তাঁর পক্ষে কংগ্রেসের সব রিপাবলিকান প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় অংশ গ্রহণ সম্ভব নয়। সম্ভবত সে কারণেই প্রতিনিধি পরিষদ হাতছাড়া হতে বসেছে।

রাজনৈতিক ওয়েবসাইট পলিটিকো জানিয়েছে, প্রতিনিধি পরিষদ হাতছাড়া হচ্ছে—সেই সম্ভাবনা মাথায় রেখে হোয়াইট হাউস আগেভাগেই ট্রাম্পের পক্ষে সাফাই তৈরি করছে। তারা বলা শুরু করেছে, সিনেট ধরে রাখা অনেক বেশি জরুরি, আর ট্রাম্পের কারণেই তা সম্ভব হয়েছে। সিনেট রিপাবলিকানদের নিয়ন্ত্রণে থাকলে ট্রাম্পের পছন্দমাফিক রক্ষণশীল বিচারক নিয়োগ দেওয়া সম্ভব হবে। তা ছাড়া ডেমোক্র্যাটরা যদি প্রতিনিধি পরিষদে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসনের প্রস্তাব গ্রহণে সক্ষম হন, সিনেট তাঁদের নিয়ন্ত্রণে থাকলে রিপাবলিকান পার্টি সে চেষ্টা বানচাল করতে সক্ষম হবে।

নিউজবিডি৭১/বিসি/নভেম্বর ০৩, ২০১৮

Comments are closed.