১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে এমপি জগলুলের মতবিনিময়
Mountain View

স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে এমপি জগলুলের মতবিনিময়

0
image_pdfimage_print

নিউজবিডি৭১ডটকম 
স্টাফ করসপনডেন্টপ্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন-সফলতা এবং সাতক্ষীরা-৪ আসনের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড জানাতে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন সাতক্ষীরা-৪ আসনের সংসদ সদস্য এস এম জগলুল হায়দার। মঙ্গলবার সকাল ১১টায় শ্যামনগর উপজেলা প্রেসক্লাবে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড তুলে ধরে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট চান জগলুল।

তিনি বলেন, সরকার নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ করছে। সারাদেশে প্রতিটি উপজেলায় স্কুল-কলেজ সরকারিকরণ করা হয়েছে। হাজার হাজার কিলোমিটার জাতীয় সড়ক ও পল্লী সড়ক নির্মাণ অথবা উন্নয়ন করা হয়েছে। সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন স্কেল দ্বিগুণ করা হয়েছে। তাদের জন্য চিকিৎসা ভাতা বৃদ্ধি, শিক্ষা ভাতা, বৈশাখী ভাতা চালু এবং বাড়ি নির্মাণের জন্য সরল সুদে গৃহ ঋণ সুবিধা প্রদান করছে সরকার।  মহিলাদের মাতৃকালীন ছুটি ৪ মাস থেকে ৬ মাস করা হয়েছে।

সংসদ সদস্য বলেন, জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা ১০ হাজার টাকা এবং ভাতা ভোগীর সংখ্যা ব্যাপক হারে বৃদ্ধি করা হয়েছে। বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা বৃদ্ধি, বেকার যুবকদের ঘরে ঘরে চাকরির ব্যবস্থা, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছানো, গরিব-অসহায় মানুষদের জন্য সোলার-প্যানেলের ব্যবস্থা, গর্ভকালীন ভাতা, খোলাবাজারে ১০ টাকা মূল্যের চাউল বিক্রি, অসহায় মহিলাদের বিনামূল্যে ভিজিডির চাল বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া তিনি সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের চিত্র গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে তুলে ধরেন  ।

জগলুল হায়দার শ্যামনগর ও কালিগঞ্জের ব্যাপক উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে বলেন, গত পাঁচ বছরে শ্যামনগরে ২৬ কিলোমিটার উপজেলা সড়ক, ২২ কিলোমিটার ইউনিয়ন সড়ক, ৭৪ কিলোমিটার গ্রামীণ সড়ক, ১৭৯টি ব্রীজ/কালভার্ট, ২১টি সাইক্লোন সেল্টার, ৩৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ করা হয়েছে। এ উপজেলায় আটটি হাট-বাজার উন্নয়ন, উপজেলা কমপ্লেক্স ভবন সম্প্রসারণ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ, ১৪ জন অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধার বাসভবন নির্মাণ, শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানে দুটি স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ, দুটি ইউনিয়ন ভূমি অফিস নির্মাণ এবং বাইশটি মসজিদ/মন্দির/কবরস্থান/শ্মশানঘাট নির্মাণ অথবা সংস্কার কাজে বাজেট দেয়া হয়েছে।

এছাড়া শ্যামনগরে একটি স্কুল ও একটি কলেজ সরকারিকরণ করা হয়েছে। আগামী বছরের প্রথমেই উপজেলা সদরে একটি মিনি স্টেডিয়াম, একটি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ এবং একটি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের নির্মাণ কাজ শুরু হবে। ইতোমধ্যে সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে।

কালীগঞ্জ উপজেলার আটটি ইউনিয়নে উন্নয়নের চিত্রও সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন জগলুল হায়দার। তিনি বলেন, গত পাঁচ বছরে এই উপজেলার আটটি ইউনিয়নে ১১৪ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ, অসংখ্য ব্রীজ/কালভার্ট,  ৪২টি সাইক্লোন সেল্টার কাম প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ, সাতটি বাজার উন্নয়ন, উপজেলা কমপ্লেক্স ভবন সম্প্রসারণ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ, ১৭ জন অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধার বাসভবন নির্মাণ, চারটি ইউনিয়ন ভূমি অফিস এবং ছয়টি মসজিদ/মন্দির/কবরস্থান/শ্মশানঘাট নির্মাণ অথবা সংস্কারকাজে বাজেট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

কালিগঞ্জেও আগামী বছরের শুরুতেই উপজেলা সদরে একটি মিনি স্টেডিয়াম এবং একটি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজের নির্মাণ কাজ শুরু হবে।

সংসদ সদস্য বর্তমান সরকারের উন্নয়ন ও সফলতা প্রচারে গণমাধ‍্যম কর্মীদের ভূমিকা অপরিসীম জানিয়ে তাদেরকে তা প্রচারের জন্য অনুরোধ জানান।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, কালীগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ সাহাবুল আলম, শ্যামনগর উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ হারুন অর রশিদ, শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি অসীম জোয়ারদার, ঈশ্বরীপুর ইউপি চেয়ারম্যান এ‍্যাডঃ শুকুর আলী, বুড়িগোয়ালিনী ইউপি চেয়ারম্যান ভবতোষ মন্ডল, মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান অসিম মৃধা, কৈখালী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান রেজাউল ইসলাম, কালিগঞ্জ ধলবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সজল কুমার মুখার্জি, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ মিজানুর রহমান মিজান, ছাত্রলীগের সভাপতি একরামুল হক লায়েস, শেখ রাসেল পরিষদের সভাপতি রহমত আলী, শ্যামনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সুমন, কালীগঞ্জ উপজেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক নিয়াজ কাওসার তুহিন, শ্যামনগর উপজেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি গাজী আল ইমরান, সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন মিঠুসহ স্থানীয় সাংবাদিক এবং সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজবিডি৭১/বিসিপি/১৭ অক্টোবর, ২০১৮

Share.

Comments are closed.