মোবাইল ব্যাংকিংয়ে অর্থপাচারের ঝুঁকি বাড়ছে

নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : মোবাইল ব্যাংকিংয়ের বেনামি লেনদেনে অর্থপাচারের ঝুঁকি বাড়ছে বলে মনে করছেন ৬৭ শতাংশ ব্যাংকার। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট- বিআইবিএমের গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। অর্থপাচার রোধে দেশের নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোকে সমন্বিতভাবে কাজ করার আহ্বান জানান বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা। এক্ষেত্রে দক্ষ জনবল বাড়ানোর পাশাপাশি নজরদারি বাড়ানোর পরামর্শ বিশ্লেষকদের।

আগে আর্থিক লেনদেন হতো শুধুমাত্র প্রচলিত ব্যাংকিং পদ্ধতিতে। কিন্ত গত কয়েক বছরে সে জায়গা দখল করে নিয়েছে এটিএম কার্ড, ই-ওয়ালেট, মোবাইল ব্যাংকিংসহ বিভিন্ন ডিজিটাল পেমেন্ট সিস্টেম।

কিন্ত আধুনিক এসব পদ্ধতিতে টাকা লেনদেন দ্রুত করা গেলেও ঝুঁকি বাড়ছে। বিআইবিএমের গবেষণা বলছে, বেনামি লেনদেন, সঠিক এজেন্ট নির্বাচন না করা, অসচেতনতা সহ বিভিন্ন কারনে বাড়ছে অর্থ পাচারের ঝুঁকি। আর মোবাইল ব্যাংকিংয়ে সবচেয়ে বেশি অনিয়ম পাওয়া গেছে বিআইবিএমের গবেষণায়।

প্রযুক্তির উন্নয়নের সুযোগ নিয়ে এ ধরনের অনিয়মে জড়িয়ে পড়ছে অনেকে। তবে রাজস্ব কর্মকর্তারা মনে করেন, প্রযুক্তিকে বাদ দিয়ে নয়, বরং এর দুর্বলতা চিহ্ণিত করে তা সমাধান করতে হবে।

অর্থপাচারের ঝুঁকি মোকাবেলায় বাংলাদেশ ব্যাংকের পাশাপাশি সব সরকারি ও বেসরকারি সংস্থাকে একসাথে কাজ করার তাগিদ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের।

গ্রাহক লেনদেনের সব তথ্য অনলাইনে সংরক্ষন করা গেলে, অর্থপাচারের ঝুঁকি অনেকটা কমে আসবে বলেও মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

নিউজবিডি৭১/আ/অক্টোবর ১০, ২০১৮