১৯শে ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং ঘাড় ব্যথায় বালিশ ব্যবহারের সঠিক নিয়ম জেনে নিন!
Mountain View

ঘাড় ব্যথায় বালিশ ব্যবহারের সঠিক নিয়ম জেনে নিন!

0
image_pdfimage_print

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : প্রতিদিন মানুষ কষ্টমুক্ত থাকতে ভালো বোধ করে। আর সারাদিন পরিশ্রমের পর রাতে যখন ঘুমাতে যান সেই ঘুমটা যেন ব্যথামুক্ত হয়।
যাদের ঘাড়ে ব্যথা আছে তাদের মনে প্রশ্ন জাগে, কী ধরনের বালিশ ব্যবহার করলে ঘুমটা ভালোমতো হবে। রোগীদের অ্যাসেসমেন্ট করার সময় আমরা বুঝতে পারি কী ধরনের বালিশ তিনি ব্যবহার করবেন। তাছাড়া পাতলা ও উঁচু বালিশে শোয়ায়ে দেখি তিনি কোন বালিশে আরামদায়ক বোধ করেন অথবা ব্যথা বেড়ে যায় কিনা। পাতলা বালিশ ব্যবহারে ঘাড়ে কমপ্রেশন হয়। যদি পাতলা বালিশে ব্যথা বেড়ে যায় তাহলে ওই বালিশে শোয়া যাবে না। আমাদের প্র্যাকটিসে দেখতে পাই- পাতলা বালিশে অধিকাংশ রোগীই কষ্ট বোধ করেন।

অপরদিকে রোগীকে যদি বেশি বালিশে শোয়ানো হলে মাথা সামনের দিকে বাঁকা হয় অর্থাৎ পাতলা বালিশে ঘাড়ে যে কমপ্রেশন হয় সে জায়গা ফাঁকা হয়ে যায়, তখন ব্যথা কমে যায়। উঁচু বালিশ এবং অতিরিক্ত বালিশ আমাদের ঘাড়ের যে লোডোরটিক কার্ব থাকে সে কার্ব সঠিক অবস্থায় বা সঠিক পজিশনে রাখতে সাহায্য করে। অন্যদিকে অনেক উঁচু বালিশ ঘাড়ের ব্যথা বাড়িয়ে দিতেই পারে।

সেক্ষেত্রে মাসল স্ট্রেইন তৈরি করে ঘাড়, কাঁধ ও অন্যান্য যায়গায়। সেজন্য অবশ্যই চিৎ হয়ে শোয়ার সময় দুই হাঁটু নিচে ও কাত হয়ে শোয়ার সময় দুই হাঁটুর মাঝে বালিশ ব্যবহার করলে মাসল রিলাক্স থাকবে এবং কষ্ট কমে যাবে। অবশ্যই মনে রাখতে হবে আমরা যখন কাত হয়ে ঘুমাই তখন কাঁধ এবং মাথার মাঝখানে ফাঁকা জায়গায় এখানে এমনভাবে বালিশ ব্যবহার করতে হবে যেন মাথা এবং কাঁধের উচ্চতা সঠিক রাখে। অধিকাংশ সময়ই রোগীরা বলে থাকেন, পাতলা বালিশ ব্যবহারে অস্বস্তি অনুভূত হয়, ব্যথা কমে না এবং ভালোভাবে ঘুমাতে পারি না।

রোগীরা বলে থাকেন- পাতলা বালিশের চেয়ে উঁচু বালিশ এবং অতিরিক্ত বালিশ ঘাড়ের কষ্ট কমায় এবং ব্যথামুক্ত ঘুমাতে সাহায্য করে। উঁচু ও নিচু বালিশের মধ্যে অধিকাংশ লোকের নিচু বালিশে ব্যথা বেড়ে যায় এর সংখ্যা অনেক অনেক বেশি। পরিশেষে বলা যায়, যে বালিশ ব্যবহারে আপনি ভালো বোধ করেন সেরকম বালিশই ব্যবহার করবেন।

নিউজবিডি৭১/আ/অক্টোবর ০৪, ২০১৮

Share.

Comments are closed.