১৬ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং ‘সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা করবে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য’
Mountain View

‘সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা করবে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য’

0
image_pdfimage_print

নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি আদায়ে ঐক্যবদ্ধ কর্মসূচী নিয়ে আন্দোলনে যাচ্ছে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য। আক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে তারা রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসমাবেশ করবে। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবির পক্ষে জনমত গড়ে তুলতে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিএনপি-জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া এবং যুক্ত ফ্রন্টের নেতৃবৃন্দ সারাদেশে আলোচনা সভা সেমিনার- সিম্পোজিয়াম এবং জনসংযোগ করবেন। এর মধ্যে ময়মনসিংহ, সিলেট এবং রাজশাহীতে যুক্তফ্রন্টের ব্যানারে পৃথক তিনটি জনসভার প্রস্তুতি চলছে। এ ছাড়া আন্দোলনের পাশাপাশি বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের ব্যনারে ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়টিও আলোচনা হচ্ছে। চলতি সপ্তাহে আন্দোলন কর্মসূচী এবং একত্রে নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়ে একটি চুক্তিপত্র চূড়ান্ত হবে বলে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে। বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের অন্যতম দল বিএনপি ইতোমধ্যে রাজধানীতে সমাবেশ করার ঘোষনা দিয়েছে। আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর দলটি রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে চায়। সেখানে অনুমতি না পেলে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করবে বিএনপি। গতকাল বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী এ কর্মসূচী ঘোষনা করেন। দলীয় এক সূত্র জানায় বিএনপির এ কর্মসূচী বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের কর্মসূচীতে রূপ নিতে পারে।

আন্দোলনের পক্ষে জনমত সৃষ্টির লক্ষে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া আগামীকাল রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট অডিটরিয়ামে এক আলোচনা সভার আয়োজন করেছে। ‘সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নিরপেক্ষ সরকারের অপরিহার্যতা’ শীর্ষক এই আলোচনা সভা পেশাজীবীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আহবায়ক ড. কামাল হোসেনের নির্দেশমতে ইতোমধ্যে সারাদেশে জাতীয় ঐক্যের কমিটি গঠনের প্রস্তুতি চলছে।
রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে গত ২২ সেপ্টেম্বর জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার উদ্যোগে ‘কার্যকর গণতন্ত্র, আইনের শাসন ও জনগণের ভোটের অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলুন’ শীর্ষক নাগরিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ওই সমাবেশের মাধ্যমেই মূলত বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়েছে। ওই মঞ্চ থেকে ঘোষনা পত্র পাঠ করে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার গঠনসহ অন্যান্য দাবি মেনে নেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানানো হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে সরকার দাবি না মানলে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে সারাদেশে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন কর্মসূচী প্রনয়নের ঘোষনা দেয়া হয়েছে।

যুক্তফ্রন্টের শরিকদল নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না এ বিষয়ে বলেন, বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের আন্দোলন কর্মসূচী নিয়ে আলোচনা চলছে। এখনো কোন কিছুই চূড়ান্ত হয়নি। তবে চূড়ান্ত লক্ষের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বলা যায়। এর মধ্যে সোহরাওয়ার্দী উদ্যোনে সমাবেশ করার বিষয়েও চিন্তা ভাবনা আছে। তবে কোন কিছুই এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

আন্দোলন কর্মসূচীর বিষয়ে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায় সদস্য সচিব আ ব ম মোস্তফা আমিন বলেন, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি আদায়ের লক্ষে জনমত গড়ে তোলার কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। এ লক্ষে আগামীকাল বুধবার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার এক আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। ‘সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নিরপেক্ষ সরকারের অপরিহার্যতা’ শীষক এই আলোচনা পেশাজীবীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া সারাদেশের বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের কমিটি গঠনের প্রক্রিয়াও দু’একদিনের মধ্যে শুরু হবে। এর মধ্যে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন কর্মসূচী চূড়ান্ত করার লক্ষে প্রতিদিনই নেতৃবৃন্দ বৈঠক করছেন। আশা করছি শিগগিরই বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের সব কিছু একটি চূড়ান্ত রূপ লাভ করবে।

যুক্তফ্রন্টের শরিকদল জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন এ বিষয়ে বলেন, একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবীসহ আরও কয়েকটি দাবি আদায়ের লক্ষে প্রাথমিকভাবে সবাই বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের অঙ্গিকার করেছি। এখন তা বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া চলছে। আন্দোলনের কর্মসূচী নির্ধারণের ক্ষেত্রে বিএনপি, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া ও যুক্তফ্রন্টের নেতাদের মধ্যে আলোচনা চলছে। এর মধ্যে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার আহবায়ক ড. কামাল হোসেনের দেশের বাইরে যাওয়ার কথা রয়েছে। তিনি দেশে ফিরে আসার পর আক্টোবরের শুরুতে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের কর্মসূচী নিয়ে মাঠে নামার প্রস্তুতি চলছে।

নিউজবিডি৭১/আ/সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮

Share.

Comments are closed.