১৬ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং ১৭৩ রানেই গুটিয়ে গেল বাংলাদেশ
Mountain View

১৭৩ রানেই গুটিয়ে গেল বাংলাদেশ

0
image_pdfimage_print

ডেস্ক রিপোর্ট 
নিউজবিডি৭১ডটকম 
ঢাকা : আবুধাবিতে আফগানিস্তানের কাছে আগের দিন বিধ্বস্ত হওয়ার পর পরদিন দুবাইতে এসে ভারতের বিপক্ষেও একই অবস্থার পথে হাঁটলো বাংলাদেশ দল।

দুবাইর ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ভারতকে মাত্র ১৭৪ রানের চ্যালেঞ্জ দিতে পারলো বাংলাদেশ।

টস জিতে বাংলাদেশকেই প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায় ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা। বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাও বলেছিলেন, তারা যে করেই হোক চেয়েছিলেন প্রথমে ব্যাট করার। টস জিতে হোক কিংবা হেরে- বাংলাদেশ তো প্রথমেই ব্যাট করার সুযোগ পেয়েছে।

কিন্তু ভারতীয় পেস কিংবা স্পিন- কোনো বোলারকেই ভালো খেলতে পারলো না সাকিব-মুশফিক-মাহমুদউল্লাহরা। যে কারণে শেষ পর্যন্ত ৫ বল বাকি থাকতেই ১৭৩ রানে অলআউট হয়ে গেলো বাংলাদেশ।

নয় নম্বরে নেমে সর্বোচ্চ ৪২ রান করেন মেহেদী হাসান মিরাজ। দলের আর কেউ যেতে পারেননি ত্রিশ পর্যন্ত।

২৯ রানে ৪ উইকেট নিয়ে ভারতের সফলতম বোলার বাঁহাতি স্পিনার রবীন্দ্র জাদেজা। তিনটি করে উইকেট নেন দুই পেসার ভুবনেশ্বর কুমার ও বুমরাহ।

ইনিংসের ৫ বল বাকি থাকতেই জাসপ্রিত বুমরাহ’র বলে ক্যাচ তুলে নিয়ে মোস্তাফিজ (৩) বিদায় নিলে শেষ হয় বাংলাদেশের ইনিংস। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে যা একটু লড়াই করলেন মিরাজ। বাকিদের আসা-যাওয়ার মিছিলে মাশরাফিকে নিয়ে ৬৬ রানের জুটি গড়ে দলকে বলার মতো স্কোর এনে দেন টেল-এন্ডার এই ব্যাটসম্যান।

এর আগে জাসপ্রিত বুমরাহ’র করা ইনিংসের ৪৮তম ওভারের দ্বিতীয় বলে তুলে মারতে গিয়ে ডিপ মিড উইকেটে থাকা শেখর ধাওয়ানের হাতে ক্যাচ তুলে বিদায় নেন বাংলাদেশের ইনিংস মেরামত করা মেহদি হাসান মিরাজ। আউট হওয়ার আগে ৫০ বল খেলে ৪ বাউন্ডারি ও ২ ছক্কায় ৪২ রানের ইনিংস খেলেন মিরাজ।

এদিকে ১০১ রানেই সপ্তম উইকেটের পতনের পর মেহেদি হাসান মিরাজের সঙ্গে ৬৬ রানের গুরুত্বপূর্ণ জুটি গড়ে ভারতীয় পেসার ভুবনেশ্বর কুমারের তৃতীয় শিকারে পরিণত হয়ে ফেরেন মাশরাফি। ভুবনেশ্বরেরনবম ও ইনিংসের ৪৭তম ওভারে ফাইন লেগে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নেন ৩২ বলে ২৬ রান করা টাইগার অধিনায়ক। ওই ওভারে আউট হওয়ার আগে দুটি দারুণ ছক্কাও হাঁকিয়েছেন তিনি।

দলীয় ১০১ রানে ষষ্ঠ উইকেট হিসেবে বিদায় নেন বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপের শেষ ভরসা মাহমুদ উল্লাহ। ওই ১০১ রানেই মোসাদ্দেকের উইকেটও হারিয়েছে বাংলাদেশ। এরাই ছিল বাংলাদেশের শেষ ব্যাটিং জুটি। তাদের হারানোর ফলে তখনই বিপদে পড়ে যায় বাংলাদেশ। মাশরাফিরা লড়াইয়ের পুঁজি পাবেন কি না, সেটিই হয়ে ওঠে প্রশ্ন।

৬৫ রানে ৫ উইকেট পড়ে যাওয়ার পর হাল ধরেছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (২৫)। ইনিংসের ২২তম ওভারের শেষ বলে ভারতীয় পেসার ভুবনেশ্বর কুমারের বল মাহমুদউল্লাহ-র পায়ে লাগে। আম্পায়ার ভারতের আবেদনে সাড়া দিয়ে আউট দিয়ে দেন। কিন্তু মাহমুদউল্লাহ তার ব্যাটে লেগেছে এমন ইশারা করলেও কোনো রিভিও বাকি না থাকায় দুর্ভাগ্যজনকভাবে বিদায় নিতে হয় তাকে।

পরের ওভারেই রবীন্দ্র জাদেজার চতুর্থ শিকারে পরিণত হয়ে ফেরেন মোসাদ্দেক হোসেন (১২)। বাজে এক সুইপ শট খেলতে গিয়ে ভারতের উইকেটরক্ষক ধোনির হাতে ক্যাচ তুলে দিলে সমাপ্তি ঘটে মোসাদ্দেকের উইকেটের। ১০১ রানেই সপ্তম উইকেট হারিয়ে স্বল্প পুঁজি সংগ্রহ করার পথে টাইগাররা।

এর আগে মোহাম্মদ মিঠুনের বিদায়ের পর স্কোর বোর্ডে ৫ রান যোগ হতেই আবারও উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ভারতীয় স্পিনার রবীন্দ্র জাদেজার তৃতীয় শিকার হয়ে ফেরেন বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ব্যাটিং ভরসা মুশফিকুর রহিম (২১)। জাদেজার দ্রুতগতির স্পিনে আন-অর্থোডক্স শট খেলতে গিয়ে চাহালের হাতে ক্যাচ দেন মুশফিক। ৬৫ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে বাংলাদেশ।

স্কোর বোর্ডে ৬০ রান তুলতেই চতুর্থ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ১৬তম ওভারে ভারতীয় স্পিনার রবীন্দ্র জাদেজার দ্বিতীয় শিকার পরিণত হন মোহাম্মদ মিঠুন (৯)। নিচু হয়ে আসা বল ঠেকাতে ব্যাটে ডিফেন্স করলে বল মিঠুনের পায়ে লাগে। জাদেজার আবেদনে সাড়া দেন নি আম্পায়ার। কিন্তু রিভিওতে দেখা যায় বল আগে ব্যাটে লেগেছে। ক্রিজে এসেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

ভারতীয় স্পিনার রবীন্দ্র জাদেজার করা ইনিংসের দশম ওভারের শেষ বলে বাজে শট খেলে স্কয়ার লেগে থাকা শেখর ধাওয়ানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন সাকিব আল হাসান (১৭)।

ইনিংসের শুরতেই ব্যাটিং করতে নেমে ১৬ রানেই দুই উকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে যায় টাইগাররা। লিটন দাসের বিদায়ের চার বল পরেই ষষ্ঠ ওভারের প্রথম বলেই বুমরাহ’র বলে স্লিপে থাকা শিখর ধাওয়ানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নেন বাংলাদেশের আরেক ওপেনার নাজমুল হাসান শান্ত।

এদিকে ভারতীয় পেসার ভুবনেশ্বর কুমারের বাউন্সারে মারতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নেন বাংলাদেশের ওপেনিং ব্যাটসম্যান লিটন দাস। মারার বলই দিয়েছিলেন ভুবনেশ্বর কুমার। ফাঁদে পা দিয়ে হাঁকাতে গিয়েই ক্যাচ তুলেছিলেন লিটন। ডিপ ব্যাকওয়ার্ডে থাকা ফিল্ডার কেদার যাদব দৌড়ে এসে দারুণ এক ক্যাচ নিলে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৫টায় মাঠে গড়িয়েছে। একাধিক পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে পাজরের ব্যথা নিয়ে খেললেও আফগানিস্তানের বিপক্ষে বিশ্রামে ছিলেন মুশফিকুর রহিম। এছাড়া মোস্তাফিজুর রহমানকেও রাখা হয় বিশ্রামে। দুজনই ফিরছেন ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে।

নিউজবিডি৭১/আ/সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮

Share.

Comments are closed.