১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং খালেদার অনুপস্থিতিতেই বিচারের আবেদন আগামী ২০ সেপ্টেম্বর শুনানি
Mountain View

খালেদার অনুপস্থিতিতেই বিচারের আবেদন আগামী ২০ সেপ্টেম্বর শুনানি

0
image_pdfimage_print

নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারের অস্থায়ী আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় তার অনুপস্থিতিতেই মামলার কার্যক্রম চালিয়ে নেওয়ার আবেদন করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবীর করা এ আবেদন নিয়ে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর শুনানির দিন ধার্য করেন ঢাকার অস্থায়ী ৫ নম্বর বিশেষ আদালতের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান।

নির্ধারিত দিন আজ বৃহস্পতিবার ‘অসুস্থতার কারণে’ বিএনপি চেয়ারপারসনকে আদালতে হাজির করতে না পারায় মামলার বাদী দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল ফৌজদারি আইনের ৫৪০ ‘এ’ ধারায় আসামির অনুপস্থিতিতেই আদালতের কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার আর্জি জানান।

আদালত শুনানি নিয়ে ওই তারিখ নির্ধারণের পাশাপাশি খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করার জন্য তার আইনজীবীদের করা এক আবেদনের বিষয়ে কারাবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ারও নির্দেশ দেন।

খালেদা জিয়ার পক্ষে আদালতে শুনানি করেন তার আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদার ও সানাউল্লাহ মিয়া।

২০১০ সালের ৮ আগস্ট রাজধানীর তেজগাঁও থানায় জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা করা হয়। এ ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে এ মামলা করে দুদক। এ মামলায় ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ আদালত জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের সাজা দেন। সেদিনই তাকে পুরান ঢাকার সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

তার পর থেকে ৭৩ বছর বয়সী খালেদা জিয়া কারাগারে আছেন। এই ‘বিশেষ কারাগারে’ সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার ব্যক্তিগত এক গৃহকর্মীও রয়েছেন।

নিউজবিডি৭১/আ/সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৮

Share.

Comments are closed.