[english_date] প্রেমে ব্যর্থ হয়ে ঘুমন্ত ২ বোনেকে এসিড নিক্ষেপ, ঝলসে যাওয়া এক বোনের মৃত্যু
Mountain View

প্রেমে ব্যর্থ হয়ে ঘুমন্ত ২ বোনেকে এসিড নিক্ষেপ, ঝলসে যাওয়া এক বোনের মৃত্যু

0

নিউজবিডি৭১ডটকম
ফয়সল বিন ইসলাম নয়ন, ভোলা করেসপন্ডেন্ট : ভোলা সদর উপজেলার উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে এক যুবকের এসিড নিক্ষেপে দগ্ধ দুই বোনের মধ্যে বড় বোন তানজিম আক্তার মালা (১৬) অবশেষে মৃত্যু বরন করেছে।

এসিড নিক্ষেপের পর ৫৪ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে গতকাল শনিবার রাতে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়। এদিকে মালার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে তার গ্রামের বাড়িতে স্বজনদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে।
স্বজনরা জানান, গত ১৪ মে গভির রাতে হেলাল রাড়ির ২ কণ্যা তানজিম আক্তার মালা (১৬) এবং মারজিয়া (৮) রাতের খাবার খেয়ে দুই বোন এক সাথে ঘুমাতে যায়।

রাত ২ টার পর হঠাৎ করে জ্বানালা দিয়ে এসিড নিক্ষেপ করা হয়। এতে এসএসসি পরীক্ষায় উর্ত্তীন ছাত্রী তানজি আক্তার মালার মুখ মন্ডল,২ চোখসহ শরীরের বিভিন্ন স্থান ঝলসে যায়।

এছাড়াও তার ছোট বোন দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্রী মারজিয়া হাত ও পেটসহ বিভিন্ন স্থান ঝলসে যায়। এ সময় তাদের ডাক চিৎকার শুনে পরিবারের সদস্যরা গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে রাতেই ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের পরিস্থিতি অবনতি হওয়ায় তাদেরকে ভোলা থেকে বরিশাল প্রেরণ করা হয়েছে। পরে তাদেরকে ঢাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়। ৫৪ দিন পর ঢাকার সিআরপি হাসপাতালে শনিবার রাতে তার মৃত্যু হয়।

এঘটনার ১১ দিন পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে এসিড নিক্ষেপকারি মূল আসামী ভোলা সরকারি কলেজের অনার্স ১ বর্ষের ছাত্র মহব্বত হোসেন অপুকে ভোলা সদরের দক্ষিন দিঘলদী ইউনিয়নের বালিয়া গ্রাম থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে করে।
পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে অপু পুলিশকে জানিয়েছে, তাজিন আক্তার মালার সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে তার। পরে সে জানতে পারে মালার সাথে এক বছর আগে থেকে আরো দুটি ছেলের সম্পর্ক রয়েছে। এনিয়ে উভয়ের মধ্য বাক-বিতন্ডা হলে দুইজনের মধ্যে কথা বলা বন্ধ হয়।

এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে ব্যাটারির থেকে এসিড নিয়ে গত ১৪ মে রাত ২ টার দিকে জানালা দিয়ে মালার উপর এসিড নিক্ষেপ করে অপু। আজ বিকালে ঢাকাথেকে নিহত মালার লাশ ভোলায় আনার কথা রয়েছে বলে স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে।

নিউজবিডি৭১/আ/জুলাই ৮ ,২০১৮

Share.

Comments are closed.