১৮ই জুলাই, ২০১৮ ইং আরব আমিরাতে অবৈধ প্রবাসীদের সাধারণ ক্ষমার ঘোষণা
Mountain View

আরব আমিরাতে অবৈধ প্রবাসীদের সাধারণ ক্ষমার ঘোষণা

0
image_pdfimage_print

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : সংযুক্ত আরব আমিরাতে (ইউএই) বসবাসরত অবৈধ প্রবাসীদের জন্য সুখবর। দেশটির সরকার এ ধরনের প্রবাসীদের জন্য আগামী ১ আগস্ট থেকে তিন মাসের সাধারণ ক্ষমার ঘোষণা দিয়েছে। গত বৃহস্পতিবার দেশটির একজন শীর্ষ কর্মকর্তা এ তথ্য জানান বলে গালফ নিউজের খবরে বলা হয়।

ফেডারেল অথরিটি ফর আইডেন্টি অ্যান্ড সিটিজেনশিপের বিদেশি নাগরিক বিষয়ক ও বন্দর বিভাগের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার সাইদ রাকান আল রাশেদি গালফ নিউজকে বলেন, ঘোষিত সময়ের মধ্যে অবৈধ প্রবাসীরা চাইলে নামমাত্র ফি দিয়ে তাঁদের কাগজপত্র বৈধ করে নিতে পারেন অথবা কোনো ধরনের জেল-জরিমানা ছাড়াই ইউএই ত্যাগ করতে পারেন।

এই কর্মকর্তা আরও জানান, শিগগিরই সংবাদ সম্মেলন করে ‘বৈধতা নিশ্চিত করে নিজেকে সুরক্ষিত করুন’ শীর্ষক এই সাধারণ ক্ষমার বিষয়টি বিস্তারিত জানানো হবে।

২০১৩ সালে সাধারণ ক্ষমার আওতায় ৬২ হাজার অবৈধ অভিবাসী নিজেদের বৈধ করে নিয়েছেন। ওই সময় দুই মাসের সুযোগ দেওয়া হয়েছিল।

মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশগুলোর জন্য এক বছরের বসবাসের ভিসা প্রসঙ্গে আল রাশেদি বলেন, সিরিয়া, লিবিয়া ও ইয়েমেনের মতো যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশের নাগরিকদের জন্য এই বিশেষ ভিসা অনুমোদন করা হবে। এ ছাড়া ফিলিস্তিনের মতো রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে নিজ দেশে ফিরতে পারছেন না—এমন দেশের নাগরিকেরা বিশেষ এই মানবিক ভিসা পাবেন। কারণ মিসর হয়ে ফিলিস্থিনিদের দেশে ফেরার পথটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আরব আমিরাতে পর্যটক বা কর্মসংস্থান ভিসায় এসব দেশের যেসব নাগরিক এসে মেয়াদ শেষে অবৈধ হয়ে গেছেন তাঁরা এই মানবিক ভিসার আওতায় পড়বেন। তাঁদের কোনো ধরনের জরিমানা দিতে হবে না।

বিধবা ও তালাকপ্রাপ্তরাও এক বছরের এই বিশেষ ভিসা পাবেন।

সরকারি সূত্র জানিয়েছে, গত দুই বছরে সরকার ২৫ হাজার মানবিক ভিসা দিয়েছে। এর মধ্যে প্রায় সাড়ে ১২ হাজার ব্যক্তি জরিমানা থেকে রেহাই পেয়েছেন, বাকিরা আংশিক ছাড় পেয়েছেন।

বিদ্যমান বিদেশিদের বসবাস সংক্রান্ত আইনটিকে পর্যালোচনা করে সম্প্রতি দেশটির মন্ত্রিসভা নতুন আইনি প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। যেমন আরব আমিরাতে অধ্যায়নরত বিশ্ববিদ্যালয়ের বিদেশি শিক্ষার্থী যাঁরা তাঁদের অভিভাবকের ওপর নির্ভরশীল—তাদের ভিসার মেয়াদ দুই বছর বাড়ানো হবে।

নতুই এই প্যাকেজের আওতায় ট্রানজিট ভিসার ক্ষেত্রে যাত্রীদের প্রথম ৪৮ ঘণ্টার জন্য কোনো ধরনের ফি লাগবে না। কেউ চাইলে ৫০ দিরহাম দিয়ে এই ভিসার মেয়াদ বাড়িয়ে ৯৬ ঘণ্টা করতে পারবে।

এ ছাড়া ভ্রমণ বা বিজনেস ভিসায় আরব আমিরাতে গিয়ে মেয়াদের অতিরিক্ত সময় থেকে যাওয়া অবৈধ ব্যক্তিদের দেশ ত্যাগের সুযোগ অনুমোদন করেছে দেশটির মন্ত্রিসভা। তবে তাঁরা চাইলে পরে বৈধভাবে ভিসা নিয়ে আবার এ দেশে আসতে পারবেন। তবে যারা অবৈধভাবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে এসেছেন, তারা দুই বছরের মধ্যে আর এ দেশে ঢুকতে পারবেন না। আর যারা কাজের ভিসা নিয়ে এ দেশে এসে অবৈধ হয়ে গেছেন, তবে তাঁরা কাজ খুঁজছেন—তাঁদের নতুন করে ৬ মাসের ভিসা দেওয়া হবে।

আল রাশেদি সতর্ক করে দিয়ে বলেন, তিন মাসের মধ্যে কেউ এই সুযোগ গ্রহণ না করলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সে ক্ষেত্রে তাঁকে জেল-জরিমানার মুখোমুখি হতে। করা হবে।

নিউজবিডি৭১/আর/ ২৫ জুন , ২০১৮

Share.

Comments are closed.