১০ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং ইয়াবা পাচারে ব্যবহার করা হচ্ছে পাঠাও চালকদের
Mountain View

ইয়াবা পাচারে ব্যবহার করা হচ্ছে পাঠাও চালকদের

0
image_pdfimage_print

নিউজবিডি৭১ডটকম
আসাদুজ্জামান লিটন : রাজধানীর ঢাকায় মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে ইয়াবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য রাইড শেয়ারিং অ্যাপস পাঠাও চালকদের ব্যবহার করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ২০ হাজার পিস ইয়াবা, ৮টি মোবাইল ও একটি মোটরসাইকেলসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৩।

শনিবার, ২৩ জুন রাতে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানাধীন ১২নং সেক্টরের ১৮নং সড়কের ১১নং বাসায় অভিযান চালিয়ে পাঠাও চালকসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৩।

গ্রেফতাররা হলেন- কক্সবাজারের মাদক ব্যবসায়ী মো. ইফতেখারুল ইসলাম (২৫), ওই ভবনের কেয়ারটেকার ও উখিয়ার বাসিন্দা মো. অলি আহম্মেদ (২৪), ওষুধ কোম্পানির ইনফরমেশন অফিসার মোস্তফা কামাল এবং পাঠাও চালক মো. রানা আহম্মেদ ওরফে রাজু (২৫)।

র‌্যাব সূত্র বলছে, রাইড শেয়ারিং অ্যাপস পাঠাও-এর চালকদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে মাদক পরিবহনের মতো গুরুতর তথ্য তারা পেয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে পাঠাওয়ের সাথে অফিসিয়ালি যোগাযোগ করা হচ্ছে।

আজ রোববার রাজধানীর কারওয়ান বাজারস্থ র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক (সিও) লে. কর্নেল এমরানুল হাসান বলেন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতায় ঢাকার মাদক ব্যবসায়ীরা ইয়াবার চালান আনতে কক্সবাজার যাওয়ার ক্ষেত্রে ভীতির মধ্যে রয়েছে। আগের তুলেনায় ইয়াবা পরিবহনে ঢাকার মাদক ব্যবসায়ী ও ক্যারিয়ারদের (বাহক) চলাচল সীমিত হয়েছে। তবে আমাদের কাছে সম্প্রতি তথ্য আসে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী কক্সবাজারের উখিয়া থেকে মাদকের একটি বড় চালান ঢাকার উত্তরায় মজুত করা হয়েছে। ওই তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে ইয়াবাসহ তাদের গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরো বলেন, ইফতেখারুল ইসলাম নিজে মাদক ব্যবসায় জড়ানোর পাশাপাশি কক্সবাজারের মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে বিপুল অঙ্কের টাকার বিনিময়ে স্থানীয় যুবক ও রোহিঙ্গাদের ঢাকায় ইয়াবা নিয়ে যেতে উদ্বুদ্ধ করে। কক্সবাজার থেকে বহন করে ইয়াবা অবৈধভাবে ঢাকার উত্তরা নিয়ে এসে আশাপাশের মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে সরবরাহ করার কাজ নিয়ন্ত্রণ করত সে।

তিনি বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার ইফতেখারুল ইসলাম জানান, কক্সবাজারের উখিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের বিএসএস দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত উখিয়ার স্থানীয় কিছু যুবকের বিলাসবহুল জীবনযাপন দেখে তিনি ইয়াবা ব্যবসায় উদ্বুদ্ধ হয়। তার ধারণা ইয়াবা ব্যবসায় দ্রুত লাভবান ও বিলাসবহুল জীবনযাপন করা যায়। এছাড়াও গ্রেফতার রানা আহম্মেদ ওরফে রাজু মূলত রাইড শেয়ারিং অ্যাপস পাঠাও-এর একজন রাইডার। তিনি পাঠাওয়ের রাইড শেয়ার দেওয়ার পাশাপাশি ইয়াবা পরিবহন করে কাঙ্ক্ষিত মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে পৌঁছে দিত।

নিউজবিডি৭১/আ/২৪ জুন ,২০১৮

Share.

Comments are closed.