বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবস আজ

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : বিশ্ব শিশুশ্রম প্রতিরোধ দিবস বুধবার (১৩ জুন)আজ । আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করেছে ‘প্রজন্মের জন্য নিরাপত্তা ও সুস্বাস্থ্য’।

শিশুর অধিকার সুরক্ষা ও ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম প্রতিরোধের লক্ষ্যে আইএলও ২০০২ সাল থেকে নানা কর্মসূচি গ্রহণের মধ্য দিয়ে দিবসটি পালন করে আসছে।

প্রতিবছর বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৮০টি দেশে দিবসটি পালিত হয়। অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও আজ দিবসটি গুরুত্বের সাথে পালিত হচ্ছে।

শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং আইএলও, সেইভ দ্যা চিলড্রেন, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরাম এবং ওয়ার্ল্ড ভিশন-এর সহযোগিতায় শিশুশ্রম প্রতিরোধে গণসচেতনতা বৃদ্ধিমূলক আলোচনাসভা, সারা দেশে পোস্টারিং এবং লিফলেট বিতরণসহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন।

সরকার ২০২১ সালের মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসনে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এজন্য ৩৮টি ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিয়োজিত শিশুদের প্রত্যাহারের লক্ষ্যে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় উপ-আনুষ্ঠানিক শিক্ষা এবং দক্ষতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষণের জন্য প্রায় ২৮৫ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করেছে। ইতোমধ্যে তৈরি পোশাক শিল্প এবং চিংড়ি প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পকে শতভাগ শিশুশ্রম মুক্ত করা হয়েছে।

প্রদত্ত বাণীতে রাষ্ট্রপতি মো.আবদুল হামিদ বলেন, শিশুশ্রম প্রতিরোধে সম্মিলিত উদ্যোগ প্রয়োজন। এজন্য তিনি শিশুশ্রম প্রতিরোধে সরকারের পাশাপাশি শিশুদের কল্যাণে নিয়োজিত বেসরকারি ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থা, উন্নয়ন সহযোগী, গবেষণা প্রতিষ্ঠান, সিভিল সোসাইটি ও গণমাধ্যম, মালিক ও শ্রমিক সংগঠনসহ সংশি¬ষ্ট সকলকে আরো কার্যকর ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান।

প্রদত্ত বাণীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমান সরকারের সময়োপযোগী নানা পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে শ্রমে নিয়োজিত শিশুর সংখ্যা হ্রাস পেয়েছে।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর শিশুশ্রম সমীক্ষা ২০০৩ অনুযায়ী বাংলাদেশে শ্রমে নিয়োজিত শিশুর সংখ্যা ছিল ৩ দশমিক ২ মিলিয়ন। আমাদের সরকারের সময়োপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণের ফলে ২০১৩ সালে শিশুশ্রম সমীক্ষায় দেখা যায় শ্রমে নিয়োজিত শিশুর সংখ্যা হ্রাস পেয়ে ১ দশমিক ৭ মিলিয়নে দাঁড়িয়েছে।’

নিউজবিডি৭১/আর/ ১৩ জুন , ২০১৮