১৯শে জুন, ২০১৮ ইং সানির সবই তো প্লাস্টিক, এমন কি ওর…
Mountain View

সানির সবই তো প্লাস্টিক, এমন কি ওর…

0
image_pdfimage_print

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : মনে যা আছে সেটা মুখে আনতে এক মুহূর্তও সময় নেন না রাখি সাওয়ান্ত। সোজাসাপটা কথা বলা, বেফাঁস মন্তব্য করা, বিভিন্ন অদ্ভুত অবতারে ক্যামেরার সামনে আসা। এগুলো রাখির কাছে একেবারেই কঠিন নয়। মিডিয়া তাঁকে কভার করতে গেলে কখনও খালি হাতে ফেরেনি। কেবল মিডিয়া নয়, নেটিজেনদের মনোরঞ্জনেও সোশ্যাল মিডিয়ায় বিস্ফোরক কথাবার্তা নিয়ে প্রায়ই তিনি হাজির হন। খবরের শিরোনামে রাখি সাওয়ান্তের নাম থাকবে, আর সেখানে কন্ট্রোভার্সি শব্দটা থাকবে না; তা তো হয় না। রাখি এবং কন্ট্রোভার্সি দুটো শব্দ একে অপরের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। এবারে রাখির নাম খবরে উঠে এলো সানি লিওনের বদৌলতে। সানিকে নিয়ে একটি ভিডিওতে রাখি এমন কিছু কথা বলেছেন যা রীতিমত ভাইরাল।

সম্প্রতি রাখি তাঁর বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে একটি রেস্টুরেন্টে ডিনার করতে গিয়েছিলেন। সেখানে তাঁর সঙ্গে কেআরকে অর্থাত্‍ আরেক কন্ট্রোভার্সি কিং কামাল রাশিদ খানও উপস্থিত ছিলেন। রেস্টুরেন্টে গিয়ে তাঁরা ছবি তুলে পোস্টও করেছেন সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে। সেখানকারই একটি ভিডিওতে রাখি এবং কেআরকে সানি লিওনের প্রসঙ্গ তোলেন।

কেআরকে তাঁকে জিজ্ঞেস করেন, “বেশ কয়েকদিন ধরেই খবরে শুনছি তুমি নাকি সানি লিওনের কাছে ক্ষমা চেয়েছ? হঠাত্‍ কেন ক্ষমা চাইলে?” এর উত্তরে রাখি বলতে শুরু করলেন, “হ্যাঁ! একদম ঠিক শুনেছ যে আমি সানির কাছে ক্ষমা চেয়েছি। কারণ আমি বুঝতে পেরেছি, যেটা আমি করতে পারি সেটা ও পারবেনা। আর যেটা ও করতে পারে সেটা আমি পারব না।” এই কথাটি বলার সময় রাখি একটা চিকেন ললিপপ হাতে ধরেছিলেন। কথাটি বলার পর ললিপপটাকে নিয়ে সানির সম্বন্ধে খারাপ মন্তব্য করেন কেআরকে।

কেআরকে কথায় রাখি এবং বাকি বন্ধুবান্ধবরা হাসতে শুরু করলেন। মন্তব্যটি যে মোটেই ভাল ছিল না তার প্রমাণ এই ভিডিও। এর আগেও রাখি, সানিকে কটাক্ষ করে অনেক কথাই বলেছেন। সানিকে দেশছাড়া করবেন বলে উঠে পড়ে লেগেছিলেন একটা সময়। রাখির দাবি, “সানি কোথা থেকে এসেছে তা সবাই জানে। তারপরেও ওকে সবাই সিনেমায় সাইন করাচ্ছে কী করে জানি না। কী আছে ওর মধ্যে? না আছে রূপ না আছে গুণ। সবই তো প্লাস্টিক বিউটি। ওর এই দেশেই থাকা উচিত নয়।”

যদিও সানি এ বিষয় নিজে থেকে কোনও মন্তব্যও কখনও করেননি। ইন্ডাস্ট্রিতে কেবল রাখি নয়, সেলিনা জেটলির সঙ্গেও সানির সমস্যা তৈরি হয়েছিল। একটা সময় সেলিনা জেটলি তাঁর পেন্টহাউজ অ্যাপার্টমেন্ট সানি এবং তাঁর স্বামী ড্যানিয়ালকে ভাড়া দেয়। কিন্তু কয়েক দিন পরই সেলিনা তাঁদের অ্যাপার্টমেন্টটি ছেড়ে দিতে বলে। সেলিনার দাবি, ফ্ল্যাটটি সানি এবং ড্যানিয়াল ভীষণই নোংরা করে রেখেছিল। এমনকি সেলিনাকে জিজ্ঞেস না করেই তাঁরা সিসিটিভি ক্যামেরা বসিয়েছিলেন ফ্ল্যাটে। বাথরুম, বেডরুম সবকিছুই নোংরা করার করাণেই সানি এবং তাঁর স্বামীকে বাড়ি থেকে বের করে দিতে বাধ্য হন সেলিনা।

নিউজবিডি৭১/আ/১২ জুন ,২০১৮

Share.

Comments are closed.