২২শে জুলাই, ২০১৮ ইং কণ্ঠশীলন পঁয়ত্রিশে পদার্পণ করেছে
Mountain View

কণ্ঠশীলন পঁয়ত্রিশে পদার্পণ করেছে

0
image_pdfimage_print

নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : সাহিত্যের বাচিক চর্চা ও প্রসার প্রতিষ্ঠান কণ্ঠশীলন পঁয়ত্রিশে পদার্পণ করেছে। দেশের অন্যতম এই সাংস্কৃতিক সংগঠনের পঁয়ত্রিশে পদার্পণ উৎসবের উদ্বোধন হয় রোববার ‘ওরে গৃহবাসী খোল দ্বার খোল’ সম্মেলক গানের মাধ্যমে। সংগঠনটির পথচলা শুরু হয় ১৩৯১ সালের ২রা বৈশাখে (১৯৮৪ সালের ১৫ই এপ্রিল)।

কণ্ঠশীলনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠানে নিয়মিত, অনিয়মিত সদস্য ছাড়াও বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা শুভেচ্ছা জানান। শিরিন ইসলামের উপস্থাপনায় আলোচনা করেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য রফিকুল ইসলাম, বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের সেক্রেটারি জেনারেল আক্তারুজ্জামান, আবৃত্তিশিল্পী, লেখক খালেক মল্লিক, লুৎফুল কবির, আহসান দীপু প্রমুখ। এছাড়া তানজিনা তমা ও নাদিমুল ইসলামের গানের পাশাপাশি আবৃত্তি করেন লিটন বারুরী, সালাম খোকন, অনন্যা গোস্বামী ও জেএম মারুফ সিদ্দিকী।

শিক্ষাগুরু ওয়াহিদুল হক ও বাকশিল্পাচার্য নরেণ বিশ্বাসের দীর্ঘসময় পথচলার সঙ্গী অধ্যক্ষ মীর বরকত, সভাপতি গোলাম সারোয়ার ও সহ-সভাপতি মোস্তফা কামাল কণ্ঠশীলন নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন।

১৯৮৪ সালে কণ্ঠশীলন প্রতিষ্ঠার পর থেকে নিয়মিত শুদ্ধ উচ্চারণ ও আবৃত্তি শিক্ষার আবর্তন পরিচালনা করে আসছে। নিয়মিত পাঠক্রমের মধ্য দিয়ে এ পর্যন্ত প্রায় আট হাজার তরুণ-তরুণীকে কণ্ঠশীলন বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের প্রাথমিক পাঠ দিয়েছে।
অনুশীলনের ফল হিসেবে উপহার দিয়ে চলেছে আবৃত্তি অনুষ্ঠান, শ্রুতিনাট্য ও মঞ্চনাটক।

‘সঙ্কচের বিহ্বলতা নিজেরে অপমান, সঙ্কটের কল্পনাতে হয়ো না ম্রিয়মান…’ সম্মেলক গানের পরে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

নিউজবিডি৭১/আ/১৬ এপ্রিল, ২০১৮

Share.

Comments are closed.