২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং উত্তরায় রেলওয়ে কর্মকর্তার সহযোগিতায় সরকারী জায়গায় স্থাপনা!
Mountain View

উত্তরায় রেলওয়ে কর্মকর্তার সহযোগিতায় সরকারী জায়গায় স্থাপনা!

0
image_pdfimage_print

নিউজবিডি৭১ডটকম
জুবায়ের হোসেন : রাজধানীর উত্তরায় রেলওয়ে কর্মকর্তার সহযোগিতায় সরকারী জায়গায় অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ এলাকাবাসীর। এসব স্থাপনা থেকে প্রতি মাসে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন রেলওয়ের ওই অসাধু কর্মকর্তা। আব্দুল্লাহপুর থেকে বিমান বন্দর পর্যন্ত সরেজমিনে গিয়ে এ দৃশ্য দেখা যায় ।

এ বিষয়ে জানা যায়,উত্তরার আব্দুল্লাহপুর থেকে এয়ারপোর্ট এলাকা পর্যন্ত রেল লাইন এর পাশ দিয়ে সরকারী জায়গায় রেলওয়ে কর্মকর্তা (দায়িত্বরত) আলী আকবার এর সহযোগিতায় মাসিক মাসহারার বিনিময়ে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ হচ্ছে।

স.মিল এর গাছের (লক),চায়ের দোকান,ইটবালু ব্যবসা, কাঠের দোকান,খাবারের হোটেল,কাঁচাবাজার,ফার্নিচার দোকানসহ বিভিন্ন স্থাপনা।

উত্তরায় রেলওয়ে কর্মকর্তার সহযোগিতায় সরকারী জায়গায় স্থাপনা!

উত্তরায় রেলওয়ে কর্মকর্তার সহযোগিতায় সরকারী জায়গায় স্থাপনা!

Posted by newsbd71.com on Monday, February 5, 2018

এ বিষয়ে একাধিক অবৈধ স্থাপনা দোকান মালিক নাম প্রকাশ না করার শর্তে নিউজবিডি৭১কে জানান, আমরা প্রতি মাসে দোকান প্রতি ১হাজার ও বড় দোকান বা ব্যবসা হলে ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত রেলওয়ে কর্মকর্তা আলী আকবার পরিচয়দানকারী লোককে দিয়ে থাকি।

এ বিষয়ে রেলওয়ে কর্মকর্তা আলী আকবার এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি নিউজবিডি৭১কে বলেন,আমি বা আমার কোন পুলিশ কর্মকর্তা এই অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের সহযোগিতা করেনা। রেলওয়ের বিভিন্ন বিভাগ আছে। তবে বোর্ড মিটিংয়ে অবৈধ স্থাপনা সম্পর্কে উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের অবগত করা হয়। তারা যদি উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা না করে আমাদের করার কিছু নেই।

গত ২৫শে জানুয়ারী দিবাগত রাত ১১টার দিকে আজমপুর রেলগেট এলাকায় স.মিলের গাছ রেললাইন এর উপর রাখায় চলন্ত ট্রেন দূর্ঘটনায় পড়ে।ভাগ্যক্রমে কোন যাত্রীর আহত/নিহতের হাত থেকে রক্ষা পায়। তবে রেল পথ প্রায় ৩ঘন্টা অবরোধ থাকে। হাজার হাজার নারী,পুরুষ ও শিশু অসহায় হয়ে পড়ে।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক স.মিল মালিক নিউজবিডি৭১কে জানান, গাছের লক গুলি প্রায় ১৬৫ সিয়েপ্টি কাঠ বিমান বন্দর রেলওয়ে পুলিশ আমার হেফাযতে রেখে গিয়াছেন। তবে রেল পুলিশের কর্মকর্তা বিষয়টি এড়িয়ে যায়।

নিউজবিডি৭১/আর/ ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

Share.

Comments are closed.