২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং উত্তরা পাসর্পোট অফিস দালালদের দখলে!
Mountain View

উত্তরা পাসর্পোট অফিস দালালদের দখলে!

0
image_pdfimage_print

নিউজবিডি৭১ডটকম
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট : রাজধানীর উত্তরা পাসর্পোট অফিস দালালদের দখলে। নানান অজুহাতে গ্রাহকদের তথ্যাদি ভুল বলে হাতিয়ে নিচ্ছে বিশাল টাকা।পাসর্পোট অফিসের কয়েকজন কর্মকর্তার যোগসাজসে প্রতিমাসে গ্রাহকদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে কোটি টাকা। নিউজবিডি৭১ অনুসন্ধান করে এমন চিত্র পাওয়া যায়।

সরেজমিনে দেখা যায়,পাসর্পোট অফিসে গ্রাহক পাসপোর্ট করতে গেলে গ্রাহকের কোন না কোন ভাবে তার ফরম পূরন ভুল ধরা হয়। তাছাড়াও ফরম পুরন সঠিক থাকলেও বিভিন্ন কাগজের কথা বলে তাড়িয়ে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে পাসপোর্ট করতে আসা ২ জন গ্রাহক জানান, আমরা পাসপোর্ট করতে এসেছি,পরিপূর্ণ্য কাগজ পত্র নিয়ে উত্তরা পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক নাদিরা আক্তার ম্যাডাম এর কাছে উপস্থিত হই। পরে উপ-পরিচালক নাদিরা আক্তার আমাদের সাথে খারাপ আচরণ করে তার রুম থেকে তাড়িয়ে দেয়। নিচে আসার পরে আমাদের দেখে এক পাসপোর্ট দালাল কাছে এসে বলে কি হয়েছে। পরে আমাদের কাছে থাকা কাগজ পত্র দেখে বলে কাগজ ঠিক আছে। ভাই আমার নাম কালাম আমি এই পাসপোর্ট অফিসে কাজ করি কাগজ যতই ঠিক থাকুক জন প্রতি ১৫শত টাকা লাগবে। আপনারা ২জন মোট ৩ হাজার টাকা খায়, তাদের টাকা না দিলে আপনাদের পাসপোর্ট হবে না।

দালাল জানান,জন প্রতি পাসপোর্ট অফিসে ১২শত টাকা দিতে হয়- আমার জন প্রতি থাকবে ৩শত টাকা। এখানে আমি একা কাজ করিনা, মিরাজ, মোরাদ,ফারুকসহ আরো অনেক পাসপোর্টের দালাল আছে।

এ বিষয়ে উত্তরা পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক নাদিরা আক্তার এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমার অফিসে দালালের কোন স্থান নেই। বাহির থেকে গ্রাহকরা কোন দালাল কর্তৃক হয়রানি হয়ে থাকলে আমাদের করার কিছুই নেই।

ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের সুত্রে জানা যায়, নির্ধারিত ফরম পূরণের মাধ্যমে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করা যায়। কাগজের মুদ্রিত ফরম পূরণ করে আবেদন করতে হয়। অনলাইনেও আবেদন প্রক্রিয়ার একটি অংশ সম্পন্ন করা যায়। তবে সে ক্ষেত্রেও মুদ্রিত ফরম পূরণ করে জমা দিতে হবে। পর্ব ১

নিউজবিডি৭১/আর/ ১৭ জানুয়ারি ২০১৮

Share.

Comments are closed.