১৮ই জানুয়ারি, ২০১৮ ইং হঠাৎ পুলিশ আটক করলে করনীয়?
Mountain View

হঠাৎ পুলিশ আটক করলে করনীয়?

0

কথায় আছে আকাশের যত তাঁরা পুলিশের তত ধারা। প্রায়শই আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বা অন্যান্য প্রয়োজনে পুলিশ বিভিন্ন অভিযানে সন্দেহজনক ব্যক্তিদের আটক করে থাকে। তবে কোন অভিযোগ ছাড়া কাউকে অনির্দিষ্টকাল পুলিশ আটক করে রাখতে পারে না। যাচাই বাছাই করে ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাকে ছেড়ে দিতে হয় বা কোন আইনের আওতায় তাকে গ্রেফতার দেখাতে হয় এবং কোন ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে হাজির করতে হয়। আসুন জেনে রাখি হঠাৎ গ্রেফতার হলে আপনার করনীয় কি ?

১.পুলিশের নিকট নাম, ঠিকানা ও পেশাসহ নিজের পরিচয় শালিনতার সাথে তুলে ধরতে হবে।

২. পেশজীবি বা ছাত্র হলে পরিচয়পত্র প্রদর্শন করা যেতে পারে। একারণে সবসময় জাতীয় পরিচয়পত্র ও পেশাগত পরিচয়পত্র সাথে রাখা উচিত।

৩. গ্রেফতারের পর দ্রুত অন্তত একজন আত্নীয় বা বন্ধকে বিষয়টি জানানোর চেষ্টা করতে হবে। গ্রেফতারের পর আইনজীবী বা পরিবারের কাউকে গ্রেফতারের বিষয়টি জানাতে না পারলে আদালতে হাজির করার পর ম্যাজিস্ট্রেটকে সরাসরি বিষয়টি জানানো উচিত। এতে আইনি সহায়তা পাওয়ার সুযোগ সৃষ্টি হয়।

৪. গ্রেফতারের পর কাউকে থানা হাজতে রাখার আগে তার বিভিন্ন জিনিসপত্র যেমন-মোবাইল ফোন, স্বণাংলকার, ও টাকা- পয়সা ইত্যাদি থাকলে তার কাছ থেকে নিয়ে নেয়া হয়। তবে সংশ্লিষ্ট পুলিশ অফিসার সেগুলোর একটি তালিকা তৈরী করে আটককৃত ব্যক্তির সাক্ষর নেয়। এই সাক্ষর দেবার সময় তালিকাটি পড়ে নেয়া উচিত।

৫. পুলিশ অফিসারের নিকট কোন বিবৃতি দিলে তা পাঠ করে বা বিবৃতির ভাষ্য অবগত হয়ে তাতে স্বাক্ষর করা উচিত।

৬.গ্রেফতারের পর কোন পর্যায়ে নির্যাতনের শিকার হলে বা অসুস্থ হলে আদালতের মাধ্যমে বা নিজ উদ্যোগে চিকিৎসা করিয়ে নিতে নেয়া যায়। চিকিৎসা করালে এ রিপোর্টটি সংগ্রহে রাখা উচিত।

৭. কোন মামলায় বা কার্যবিধির ৫৪ ধারায় গ্রেফতার করা হলে দ্রুত ঐ মামলার নম্বরসহ কাগজপত্র নিয়ে আদালতে গিয়ে একজন আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শক্রমে জামিন শুনানীর চেষ্টা করা যেতে পারে।

জনসচেতনায়- মোঃ সাব্বির রহমান, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত), বাঞ্ছারামপুর মডেল থানা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।মোবাইল ০১৭৬৯৬৯১৯৩৬

আর/১৩ ডিসেম্বর , ২০১৭

image_print
Share.

Comments are closed.