১১ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং ‘বিদ্যুতের দাম বাড়ায় জনজীবনে কোনো প্রভাব পড়বে না’

‘বিদ্যুতের দাম বাড়ায় জনজীবনে কোনো প্রভাব পড়বে না’

0

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : বিদ্যুতের দাম ইউনিট প্রতি গড়ে ৫ দশমিক ৩ শতাংশ বৃদ্ধিকে মামুলি আখ্যায়িত করে প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী বলেছেন, এ মামুলি ব্যাপারে জনজীবনে কোনো প্রভাব পড়বে না।

শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) সকালে বিদ্যুৎ ভবনে সেক্টর লিডারদের দুইদিনব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নে এমন মন্তব্য করেন তারা।

জ্বালানি উপদেষ্টা বলেন, ‘বিদ্যুতের যে দাম বাড়ানো হয়েছে, আমি মনে করি এটি খুবই সামান্য এবং মামুলি ব্যাপার; জনজীবনে এর প্রভাব পড়বে বলে মনে করি না। দাম বৃদ্ধির কাজটি বিইআরসি নিজস্ব বিবেচনা থেকে বাড়িয়েছে, এক্ষেত্রে আমাদের কোনো প্রভাব নেই।’

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম গড়ে ৩৫ পয়সা বা ৫ দশমিক ৩ শতাংশ বাড়ানোর সিদ্ধান্তের কথা জানায়, যা আগামী ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হবে।

বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর সমালোচনা এসেছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কাছ থেকে। এর প্রতিবাদে বাম দলগুলো ৩০ নভেম্বর হরতালও ডেকেছে।

এদিকে দাম বাড়ানোর পরও সরকারকে বিদ্যুৎ খাতে ভর্তুকি দিতে হবে বলে জানিয়ে তৌফিক-ই এলাহী চৌধুরী বলেন, ‘এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন নিশ্চয় সবদিক বিবেচনা করেই এই দাম বাড়িয়েছেন। বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হলেও সরকারকে চার হাজার কোটি টাকার মতো ভর্তুকি দেওয়া লাগবে। সরকার এটাকে ভর্তুকি বলেনা, এটাকে বলা হয় মানুষের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে একটা বিনিয়োগ।’

উপদেষ্টা আরও বলেন, ‘গ্রামে-গঞ্জে লাইফ লাইন গ্রাহকদের বিদ্যুতের বিল বাড়েনি। নিম্ন মধ্যবিত্ত গ্রাহকদের বিল সামান্য বেড়েছে। মিনিমাম চার্জ একটা নেওয়া হত, সেটাকে রহিত করা হয়েছে। সামঞ্জস্যকরণ করা হয়েছে। মামুল একটু বৃদ্ধি করা হয়েছে।’

দাম বাড়ানো নিয়ে কেউ কোনো রাজনৈতিক কিংবা অর্থনৈতিক খেলায় মেতে না উঠলে সব ঠিক থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন জ্বালানি উপদেষ্টা।

নিউজবিডি৭১/এম/২৪ নভেম্বর ২০১৭

image_print
Share.

Comments are closed.