২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং সাদ হারিরি পদত্যাগপত্র জমা দিতে শিগগিরই লেবানন ফিরবেন

সাদ হারিরি পদত্যাগপত্র জমা দিতে শিগগিরই লেবানন ফিরবেন

0

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : সদ্য পদত্যাগ করা লেবাননের প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি তার পদত্যাগপত্র জমা দিতে কিছুদিনের মধ্যেই দেশে ফিরবেন। এ ছাড়া রিয়াদে আটক থাকার গুঞ্জনও উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। সাদ হারিরি রোববার জানিয়েছেন, তিনি সৌদি আরবে ‘মুক্ত’ রয়েছেন এবং ‘খুব শিগগিরই’ লেবাননে ফিরবেন। কয়েকদিন আগে লেবাননের প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করার ঘোষণা দেয়ায় ওই অঞ্চলে চরম উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। সংবাদসূত্র : এএফপি, বিবিসি

সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদ থেকে তার দলের ‘ফিউচার টিভি’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে হারিরি সৌদি আরবে কার্যত তিনি গৃহবন্দি রয়েছেন- এমন গুজব-নির্ভর খবর উড়িয়ে দেয়ার পাশাপাশি সৌদি থেকে তার আকস্মিক চলে যাওয়ার ঘোষণা দেন। হারিরি বলেন, ‘সৌদি আরবে আমি মুক্ত অবস্থায় রয়েছি।’

হারিরি বলেন, ‘আমি খুব শিগগিরই লেবাননে ফিরে যাব।’ পর মুহূর্তেই আবার বলেন, ‘কাল অথবা আগামী দুই-তিনদিনের মধ্যেই আমি বৈরম্নতে ফিরব।’ গত ৪ নভেম্বর রিয়াদ থেকে টিভিতে দেয়া এক ভাষণে ৪৭ বছর বয়সী হারিরি তার পদত্যাগের ঘোষণা দেন। এখন পর্যন্ত্ম তিনি তার দেশ লেবাননে ফেরেননি। রিয়াদ ও তেহরানের মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধির পর হারিরির আকস্মিক পদত্যাগের খবর আসে। এ সময় হারিরি তার দেশ জোরপূর্বক দখল করে নেয়ায় এবং ওই অঞ্চলকে অস্থিতিশীল করে তোলায় ইরান ও তাদের লেবাননি মিত্র হিজবুলস্নাহকে অভিযুক্ত করেন। তিনি বলেন, ‘আমরা লেবাননে এমন পরিস্থিতি আর চলতে দিতে পারি না। আরব দেশগুলোতেও ইরানের হস্ত্মক্ষেপ আমরা আর মেনে নেবো না।’

উলেস্নখ্য, ইরান ও সৌদি আরবের দ্বন্দ্বে লেবাননের হিজবুলস্নাহ অনেক গুরম্নত্বপূর্ণ। দীর্ঘদিন ধরে সৌদি আরব চেষ্টা করছে, লেবাননে শিয়া এই দলটিকে দুর্বল করতে। হিজবুলস্নাহ লেবাননের গুরম্নত্বপূর্ণ রাজনৈতিক শক্তি ও বর্তমান জোট সরকারের অংশ।

এদিকে, তার এই পদত্যাগের মাধ্যমে লেবানন জেগে উঠবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। হারিরি স্বীকার করেন, তার পদত্যাগ যথাযথ প্রক্রিয়ায় ছিল না। তবে দেশে একটি ‘ইতিবাচক নাড়া’ দিতে চেয়েছেন তিনি। হিজবুলস্নাহকে নিয়ে তিনি বলেন, ‘দল হিসেবে তাদের সঙ্গে আমার কোনো বিরোধ নেই। তবে তারা আমাদের দেশ ধ্বংস করে দিচ্ছে- এটা আমি মেনে নিতে পারি না।’

পদত্যাগের ঘোষণা দেয়ার জন্য কেন সৌদি আরবকে বেছে নিলেন এবং পদত্যাগ করার পর গত এক সপ্তাহ কেন আত্মগোপনে ছিলেন, এর কোনো কারণ জানাননি হারিরি। তিনি দাবি করেন, তার নিজের প্রাণের পাশাপাশি লেবাননের জন্য নিরাপত্তাগত হুমকি তৈরি হওয়ায় তিনি পদত্যাগ করেছেন।

লেবাননের ‘পদত্যাগী’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, পদত্যাগ করার পর তিনি সৌদি আরবে নিজ বাসভবনে অবস্থান করছেন। তিনি আরও বলেন, ‘আমার কাছে এমন কিছু খবর ও তথ্য ছিল, যার কারণে পদত্যাগ করে লেবাননকে রক্ষা করার সিদ্ধান্ত্ম নিয়েছি।’

নিউজবিডি৭১/আর/১৪ নভেম্বর ২০১৭

image_print
Share.

Comments are closed.