১৮ই জুলাই, ২০১৮ ইং দুর্যোগ মোকাবিলা করার জন্য সরকারের যা করা উচিত ছিল তা লক্ষ্য করা যায়নি : ফখরুল
Mountain View

দুর্যোগ মোকাবিলা করার জন্য সরকারের যা করা উচিত ছিল তা লক্ষ্য করা যায়নি : ফখরুল

0
image_pdfimage_print

নিউজবিডি৭১ডটকম
মোঃ রাকিব আল রিয়াদ, ঠাকুরগাঁও করেসপন্ডেন্ট : বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ভারতের বাঁধগুলো খুলে দেওয়ার কারণেই হঠাৎ করে উত্তরাঞ্চলের তিস্তাসহ সকল নদ-নদীতে পানি বেড়ে বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এতে
পানিবন্দী হয়েছে অনেকেই। বন্যার পানিতে ডুবে অনেকেরি হয়েছে মৃত্যু।

আর এই দুর্যোগ মোকাবিলা করার জন্য সরকারের যা করা উচিত ছিল দুর্ভাগ্যজনকভাবে তা লক্ষ্য করা যায়নি।

সোমবার (১৪ আগস্ট) সকালে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর তার নিজ বাস ভবনে সংবাদ সম্মেলন শেষে বেলা ১২টায় নিজ নির্বাচনী এলাকা ঠাকুরগাঁওয়ে বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন ও আশ্রয়কেন্দ্রে ত্রাণ বিতরণ শেষে এসব কথা বলেন।

দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ শেষে সরকার বন্যায় আটকে পড়া মানুষকে উদ্ধার করে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে আসবে বলে আশা ব্যাক্ত করে তিনি বলেন, আমাদের নেত্রী নেতা কর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন বন্যা কবলিত অসহায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়ানোর জন্য।

এই প্রশ্নের জবাবে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ষোড়শ সংশোধনীর রায় নিয়ে সরকার বাংলাদেশে নাটক সৃষ্টি করেছে।

এই রায়ের মাধ্যমে সরকারে টিকে থাকার নৈতিক অধিকার যে আওয়ামী লীগের নেই সেটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এই রায়ে যে বিষয়গুলো
এসেছে তা ধ্রুব তারার মতো সত্য।

এর আগে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঠাকুরগাঁওয়ে বন্যা কবলিত কয়েকটি আশ্রয়কেন্দ্রে অসহায় মানুষের মাঝে শুকনো খাবার চাল ও ডাল বিতরণ করেন ও ঠাকুরগাঁওয়ের বন্যা প্লাবিত এলাকা পরিদর্শন করেন।

এসময় আরো উপস্থিতি ছিলেন ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক,ঠাকুরগাঁও পৌরসভা মেয়র মির্জা ফয়সল আমিন, ঠাকুরগাঁও জেলা যুবদলের সভাপতি মহেবুল্লাহ আবু নূর চৌধুরীসহ প্রমূখ।

নিউজবিডি৭১/এস আই/ ১৪ আগস্ট , ২০১৭

Share.

Comments are closed.