২৫শে মার্চ, ২০১৭ ইং ‘পর্দার আড়ালে নয়’ বিশ্বের কাছে দৃষ্টান্ত এই সৌদি রাজকুমারী

‘পর্দার আড়ালে নয়’ বিশ্বের কাছে দৃষ্টান্ত এই সৌদি রাজকুমারী

0

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : নাম আমিরাহ আল তাউইল। সৌদি আরবের রাজকুমারী তিনি। কিন্তু শুধু এই পরিচয় নিজেকে আটকে রাখেননি ৩৩ বছর বয়সী অসাধারণ সুন্দরী আমিরাহ। মেয়েদের জন্য শরিয়তের নির্ধারণ করে দেওয়া নিয়ামাবলী, পোশাক সব কিছুর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। নিজের স্টাইল স্টেটমেন্ট যেমন তৈরি করেছেন তেমনই সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দিয়েছেন নিজের সেবামূলক কাজ। চিনে নিন আমিরাহকে।

১৯৮৩ সালের ৬ নভেম্বর সৌদি আরবের রিয়াধে জন্ম আমিরাহ আল তাউইলের।

বাবা আইদান বিন নায়েফ আল তাউইল আল ওতাইবি। তবে রিয়াধে বিবাহ বিচ্ছিন্না মা ও দাদু-দিদার কাছেই বড় হয়েছেন আমিরাহ।

১৮ বছর বয়সে প্রেমে পড়েন নিজের থেকে ৩২ বছরের বড় রাজকুমার আলওয়ালিদ বিন তালালের। বিয়েও হয়। ২০১৩ সালের নভেম্বর মাসে বিচ্ছেদ হয়ে যায় আমিরাহর।

নিজেকে চার দেওয়ালের ভিতর, পর্দার আড়ালে লুকিয়ে রাখা তো দূরের কথা, সৌদি আরবের গণ্ডিতেও আটকে রাখেননি আমিরাহ।
রিয়াধের বাসিন্দা আমিরাহ বিশ্বের ৭০টি দেশের বিভিন্ন সেবামূলক ও গঠনমূলক কাজের সঙ্গে যুক্ত।

দারিদ্র ও বিপর্যগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোকে নিজের কর্তব্য মনে করেন আমিরাহ।পশ্চিম আফ্রিকায় শরনার্থী শিবির, পাকিস্তানে বন্যাত্রাণ পৌঁছনো, কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটিতে সেন্টার অব ইসলামিক স্টাডিজ খোলা, সোমালিয়ায় মিশন তার কাজের কিছু উদাহরণ।

দেশের প্রথম মহিলা হিসেবে ঢিলেঢালা সম্পূর্ণ শরীর ঢাকা পোশাক পরতে অস্বীকার করেন আমিরাহ। ইউরোপীয় পোশাকের মধ্যেই ফুটিয়ে তোলেন নিজস্ব স্টাইল স্টেটমেন্ট।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ হেভেন ইউনিভার্সিটি থেকে বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের ডিগ্রিধারী আমিরাহ মনে করেন বিশ্বের সব মেয়েদের প্রাথমিক লক্ষ্য হওয়া উচিত নিজেকে শিক্ষিত করে তোলা। রাজকন্যাসুলভ জীবনযাপন না করে নিজের গাড়ি নিজেই চালান আমিরাহ।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ হেভেন ইউনিভার্সিটি থেকে বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের ডিগ্রিধারী আমিরাহ মনে করেন বিশ্বের সব মেয়েদের প্রাথমিক লক্ষ্য হওয়া উচিত নিজেকে শিক্ষিত করে তোলা। রাজকন্যাসুলভ জীবনযাপন না করে নিজের গাড়ি নিজেই চালান আমিরাহ।

সৌন্দর্য, স্বচ্ছ মানসিকতা ও সুন্দর মনের মেলবন্ধন আমিরাহ।  সূত্র: আনন্দবাজার

নিউজবিডি৭১ডটকম/এম/১২ জানুয়ারি, ২০১৭

image_print
Share.

Comments are closed.