লুকাকুর জোড়া গোলে তিউনিসিয়ার বিপক্ষে ৩-১ এগিয়ে বেলজিয়াম

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : রোমেলু লুকাকুর জোড়া আর ইডেন হ্যাজার্ডের পেনাল্টি গোলে তিউনিসিয়ার বিপক্ষে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে গেছে বেলজিয়াম।

ম্যাচের শুরুতে ৬ মিনিটে তিউনিসিয়ার ডিফেন্ডার ডি-বক্সের ভেতর হ্যাজার্ডকে অবৈধ ট্যাকল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পট কিক থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে নিতে বিন্দুমাত্র ভুল করেননি চেলসির ফরোয়ার্ড।
এরপর ১৬ মিনিটে মার্টেন্সের পাস থেকে গোল করে দলকে ২-০ গোলের লিড এনে দেন লুকাকু। এই নিয়ে চলতি বিশ্বকাপে তৃতীয় গোলের দেখা পেলেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এই তারকা স্ট্রাইকার

ম্যাচের যোগ করা সময়ে অসাধারণ গোল করে স্কোরলাইন ৩-১ করেন বেলিয়ামের রোমেলু লুকাকু। ডি ব্রুইনির পাস মিউনিয়েরের পায়ে গেলে তিনি গোল করার পজিশনে পৌঁছে যাওয়া লুকাকুর পায়ে ফিরতি পাস দিলে বল জালে জড়িয়ে দিতে কোন অসুবিধা হয়নি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তারকার। তার এই গোলে ৩-১ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে বিরতিতে যায় বেলজিয়াম।

আজকের ম্যাচে ২ দুই গোল করে ইতিহাসে ঢুকে গেছেন লুকাকু। বেলজিয়ামের হয়ে বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ (৭) গোলের রেকর্ড এখন তার দখলে। চলতি বিশ্বকাপে লুকারুর চতুর্থ গোল। পর্তুগালের ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর সাথে যুগ্মভাবে চলতি বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোলদাতা এখন লুকাকু।

বেলজিয়ামের একাদশ:
থিবাউ কুরতোয়া, টোবি আল্ডারভাইরেল্ড, দ্রেদ্রিক বয়োতা, ইয়ান ভেট্রোনঘেন, থমাস মুনিয়ের, আক্সেল ভিটসেল, কেভিন দে ব্রুইনি, ইয়ান্নিক কারাসকো, ড্রেইস মার্টেন্স, ইডেন হ্যাজার্ড, রোমেলু লুকাকু।

তিউনিসিয়া একাদশ :
ফারুক বেন মুস্তাফা, (গোলরক্ষক), ইয়াসিনে মেরিয়াহ, সিয়াম বেন ইউসেফ, আলি মালুল, দাইলান ব্রন, ফেরজানি সাসি, ইলিয়াস সিকিরি, আনিস বাদ্রি, ফাখরেদ্দিন বেন ইউসেফ, সাইফেদ্দিন খায়োয়ি, ওয়াহবি খাজরি।

নিউজবিডি৭১/আ/২৩ জুন ,২০১৮




বিশ্বকাপ স্টেডিয়ামে মারামারি, আর্জেন্টিনার ৭ নাগরিক আটক

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : বিশ্বকাপ ফুটবলের আর্জেন্টিনা ও ক্রোয়েশিয়া ম্যাচে বেশ কয়েকজন আর্জেন্টিনা নাগরিকের বিরুদ্ধে মারামারির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আর্জেন্টিনার সাত নাগরিককে পুলিশ আটক করেছে।

বৃহস্পতিবার (২১ জুন) নিঝনি নভগোরদ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচচলাকালে এ ঘটনা ঘটে।

রাশিয়া বিশ্বকাপ আয়োজক কমিটি জানিয়েছে, শুক্রবার (২২ জুন) আর্জেন্টিনার সাত নাগরিককে আটক করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার (২১ জুন) ম্যাচ চলাকালীন ক্রোয়েশিয়া সমর্থকদের সঙ্গে মারামারি করার অভিযোগে তাদের আটক করা হয়েছে।

এর আগে ফিফা থেকে জানানো হয়, শুক্রবার নিঝনি নভগোরদ স্টেডিয়ামে আর্জেন্টিনা ও ক্রোয়েশিয়ার মধ্যকার ম্যাচে যারা গোলমাল করেছে তাদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

লিখিত বক্তব্যে আয়োজক কমিটির এক মুখপাত্র আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, নিঝনি নভগোরদের নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষ থেকে স্থানীয় আয়োজক কমিটি এই তথ্য পায়। আর্জেন্টিনা ও ক্রোয়েশিয়া ম্যাচ শেষে সাত আর্জেন্টিনার নাগরিকে আটক করা হয়। বিষয়টি এখন জুডিশিয়াল কর্তৃপক্ষের অধীনে এবং সরকারি আইন অনুযায়ী তাদের বিচার হবে।

নিউজবিডি৭১/আ/২৩ জুন ,২০১৮




অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : টেস্ট-টি টোয়েন্টি যেমনই হোক না কেন একদিনের ওয়ানডে ক্রিকেটে আশা জাগানিয়া দল বাংলাদেশ। যদিও এখন পর্যন্ত বড় কোন টুর্নামেন্ট জিততে পারেনি দলটি। তবুও চেষ্টা চলছে ধীরে ধীরে নিজেদের উন্নতি করতে।

এদিকে একটি পরিসংখ্যানে উঠে এসেছে ২০১৫ বিশ্বকাপের পর ক্রিকেট পরাশক্তি পাকিস্তান-অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে জয়ের হারে এগিয়ে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়ার অবস্থা যাচ্ছে- তাই। গত ৩৪ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে ছয় নাম্বারে নেমে গেছে অজিরা। হিসাব বলছে, ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের পর ১৬ ম্যাচের ১৪টিতেই হেরেছে তারা। আর তাতে দলটি জয় পেয়েছে শতকরা ৪৭ ভাগ ম্যাচে।

যেখানে বাংলাদেশ জিতেছে ৫০ ভাগ ম্যাচ। এই তালিকায় টাইগারদের থেকে পিছিয়ে আছে পাকিস্তানও। তারা জিতেছে ৪৮ ভাগ ম্যাচ। শ্রীলঙ্কা আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ আরো অনেক বেশি পিছিয়ে। শ্রীলঙ্কা ৩১ আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিতেছে ২৬ শতাংশ ম্যাচ।

নিউজবিডি৭১/আ/২৩ জুন ,২০১৮




‘ক্রিকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ’ ফুটবলে আর্জেন্টিনা!

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : এখন প্রশ্ন উঠতেই পারে আর্জেন্টিনা কি ক্রিকেটের ওয়েস্ট ইন্ডিজ? ব্যাপারটা অনেকটা সেরকম! দুটি দলেরই আছে সোনালী অতীত। ক্রিকেটের কলি যুগে রজত্ব করছে স্যার ভিভ রিচার্ডস, ক্লাইভ লয়েড, মাইকেল হোল্ডিং, ম্যালকম মার্শাল, আলভিন কালিচরণ, কোর্টলি অ্যামব্রোস, কোর্টনি ওয়ালশ, জোয়েল গার্নারদের ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

একই ভাবে ফুটবল বিশ্বকাপের শুরুর দিকে দুর্দান্ত দাপট দেখিয়েছে আর্জেন্টিনা। কাকতালিয়াভাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো সত্তর দশকের শেষ ভাগ থেকে নব্বইয়ের মাঝামাঝি পর্যন্ত দুর্দান্ত দাপট দেখিয়েছে আর্জেন্টিনা। এর মধ্যে শিরোপা জিতেছে দুবার (১৯৭৮ ও ১৯৮৬)। ১৯৯০ সালে ফাইনাল খেলেছে। ক্যারিবীয়ানরা ক্রিকেটও বিশ্বকাপ (ওয়ানডে) জিতেছে দুবার।

যদিও নিকটর অতীতে তারা দুটি টি-টুয়োন্টি বিশ্বকাপ জিতেছে। কিন্তু ক্রিকেট বিশ্বকাপ বলতে সাধারণ মানুষ এখনো ওয়ানডে বিশ্বকাপকেই বুঝে।

গুইলার্মো স্তাবিল, মারিও কেম্পেসের পর সেই সৌরভটাকে ছড়িয়ে নিয়ে গেছেন ডিয়াগো ম্যারাডোনা, ভালদানো, বুরুচাগা,ওর্তেগা, ক্লদিও লোপেজরা। এরপর বাতিস্তুতা-ক্যানিজিয়ারা ১৯৯৩ সালে কোপা জিতেছিলেন সেটাই ছিলো আর্জেন্টিনার সর্বশেষ সেরা সাফল্য।

কিন্তু এই প্রজন্মেও আর্জেন্টিনায় একজন আছেন তিনি লিওনেল মেসি। ম্যারাডোনার যোগ্য উত্তরসূরী। কিন্তু ম্যারাডোনার মতো সৌরভ ছড়াতে পারছেন কেই? পারবেনই বা কেমন করে তার যে যোগ্য সঙ্গি নেই। যেমন ছিলো না ওয়েস্ট ইন্ডিজের লারার। মেসি তিনি তো একাই! একাই একটা দূর্গ!

উইকেটে লারা নেই তো মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজও নেই! একই রকমভাবে মেসি রং ছড়াতে না পারলে আর্জেন্টিনাও সাদামাটা। লারা থাকতেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের রাজত্ব অস্তগামী ছিল। যেমনটা হতে যাচ্ছে এখন আর্জেন্টিনার ক্ষেত্রে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ছোট দল গুলোর সাথে হারতে হারতে এখন র‌্যাঙ্কিংয়ের তলানিতে। গত এক বছরের মধ্যে র‍্যাঙ্কিংয়ে অপেক্ষাকৃত নিচের দলের সঙ্গে পরাস্থ হচ্ছে আর্জেন্টিনা। এবারের বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব স্মরণ করে দেখুন। ইকুয়েডরের বিপক্ষে বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে মেসি হ্যাটট্রিক না করলে হয়তো ক্রোয়েশিয়ার মুখোমুখি হতো অন্য কোনো দল। একইভাবে ২০১৯ বিশ্বকাপে জায়গা পেতেও বেগ পেতে হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে।

এখানেই শেষ নয়। দুটি দলের মধ্যে আরও কিছু মিল রয়েছে। বর্তমানেও দুটি দলে রয়েছে অসাধারণ কিছু প্রতিভাবান প্লেয়ার। বিশ্বের বড় বড় ফ্রাঞ্চইজি ক্রিকেট লিগে দাপটের সাথে খেলছে ক্যারিবিয়ান ক্রিস গেইল, সুনিল নারিন, আন্দ্রে রাসেল, ইভান লুইস, ডোয়াইন ব্রাভোর মতো তারকারা। কিন্তু টিম হিসেব এদের খুব কমই জ্বলে উঠতে দেখা যায়।

ইউরোপের বড় বড় ক্লাবগুলোর সেরা সেরা বেশিরভাগ তারকা ফুটবলার আর্জেন্টিনার। বার্সায় প্রাণভোমরা যেমন মেসি, ম্যানচেস্টার সিটিতে আগুয়েরো, রক্ষনে আছে ওটামেন্ডি। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে আছে রোহো। জুভেন্টাসের নাম্বার টেন দিবালা সাথে আছে আরেক ফরোয়ার্ড হিগুয়েন। পিএসজির সেরা মিডফিল্ডার ডি মারিয়া ও লো সেলসো। ইন্টার মিলানের সুপারস্টার ইকার্দি। এছাড়া উঠতি তারকা বোকা জুনিয়র্সের পাভন। এরা সবাই নিজ নিজ ক্লাবের সেরা খেলোয়াড়। কিন্তু টিম হিসেবে বারবরের মতোই নিস্প্রভ।

ক্রিকেটের বয়োবৃদ্ধ ভক্তরা আজও ওয়েস্ট ইন্ডিজের সেই পুরোনো সময়কে মনে মনে ধন্যবাদ জানান, দারুণ কিছু স্মৃতি উপহার দেওয়ার জন্য। ঠিক তেমনি নব্বইয়ের দশকের সুখস্মৃতি আকরে ধরে আর্জেন্টাইন ভক্তরা আজও আশায় বুক বাঁধে সোনালী ট্রফিটাকে আরেকবার উঁচিয়ে ধরার জন্য।

ক্রিকেটের বরপুত্র মুকুটহীন সম্রাট ব্রায়ন লারার মতো কি মুকুটহীন থাকবেন লিওনেল মেসি? আপতত আবহ তাই বলছে। শুভকামনা দুই বিভাগের দুই কিংবদন্তির জন্য। ফিরে আসুক তাদের সুদিন। বিশ্ব ক্রীড়াপ্রেমীরা আবারো উপভোগ করুক ফুটবল-ক্রিকেটের শৈল্পিক সৌন্দর্য।

নিউজবিডি৭১/আ/২৩ জুন ,২০১৮




সুইজারল্যান্ডের জয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়া কঠিন হয়ে গেল ব্রাজিলের

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : কোস্টারিকার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ জেতায় সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে জিতলেই দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত ছিল সার্বিয়ার। কিন্তু গতকাল শুক্রবার রাতে অনুষ্ঠিত ম্যাচে প্রথমে এগিয়ে থেকেও সুইসদের কাছে ২-১ গোলে হেরে গেছে সার্বিয়া।

এই ম্যাচের পর গ্রুপ ‘ই’তে ব্রাজিলের কিছুটা চিন্তা বাড়ল। গ্রুপে ‘ই’তে বর্তমানে এক জয়, এক ড্রয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে ব্রাজিল। সমান ৪ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থেকে সুইজারল্যান্ডের অবস্থান দুইয়ে। আর এক জয় ও এক পরাজয়ে ৩ পয়েন্ট নিয়ে তিনে সার্বিয়া। গ্রুপের অপর সদস্য কোস্টারিকা দুটি ম্যাচ হারায় তাদের প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। দুটি দল খেলবে দ্বিতীয় রাউন্ডে। তবে কাগজে কলমে সুযোগ রয়েছে তিন দলের।

বর্তমান যে অবস্থা তাকে ব্রাজিলের এখন সার্বিয়ার বিপক্ষে ২৮ জুনের ম্যাচটি জিততে হবে। অবশ্য ড্র করলে চলবে। কারণ ব্রাজিল ওই ম্যাচ হারলে সার্বিয়া দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠে যাবে। এবং অন্য ম্যাচে কোস্টারিকাকে হারালে সুইজারল্যান্ডও দ্বিতীয় রাউন্ডে চলে যাবে। তখন বাদ পড়বে ব্রাজিল। আবার ব্রাজিল যদি ওই ম্যাচে ড্র করে তখন ৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডের টিকিট পেয়ে যাবে ব্রাজিল। অন্যদিকে সার্বিয়ার পয়েন্ট হবে ৪। তখন কোস্টারিকার সঙ্গে সুইজারল্যান্ডের ম্যাচে ফলাফলের ওপর নির্ভর করবে বাকি কোন দলটি দ্বিতীয় রাউন্ডে যাবে এবং গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন কারা হবে? কিন্তু গতকাল যদি সুইসদের বিরুদ্ধে সার্বিয়া জিতে যেতে সেক্ষেত্রে ২৮ জুনের ম্যাচে ব্রাজিল হারলেও সুযোগ থাকতো। এখন ওই ম্যাচে হারলে তাই কোস্টারিকার বিরুদ্ধে সুইসদেরও হারতে হবে-তবেই মিলবে দ্বিতীয় রাউন্ডের টিকিট। তবে সেখানেও আসবে গোল ব্যবধানের হিসাব-নিকাশ।

নিউজবিডি৭১/আ/২৩ জুন ,২০১৮




নেইমার-কৌতিনিয়োর গোলে ব্রাজিলের জয়

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : শুরু থেকে অসাধারণ খেলেও গোলের দেখা পায়নি ব্রাজিল। গোলের জন্য মরিয়া হয়ে খেলা নেইমারদের সাফল্য পেতে যে অতিরিক্ত সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে তা কেউ আঁচ করতে পারেননি। অবশেষে তাই হলো। ৯০ মিনিটে অসাধারণ খেলেও গোলের অপেক্ষায় থাকা ব্রাজিল অতিরিক্ত ৮ মিনিটে পেল দুই গোল।

রাশিয়া বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে কোস্টারিকাকে ২-০ গোলে হারিয়েছে ব্রাজিল। নেইমার-কৌতিনিয়োর গোলে জয় পেল ব্রাজিল।

গোলের জন্য যা যা করা দরকার তাই করে যাচ্ছেন নেইমাররা। কিন্তু ভাগ্য খারাপ হলে যা হয় তাই হচ্ছে ব্রাজিলের। একের পর এক আক্রমণ চালিয়েও গোলের দেখা পাচ্ছেন না নেইমার-জেসুসরা।

তবে ধন্যবাদ দিতেই হবে কোস্টারিকার গোলকিপার কেইলর নাভাসকে। তিনি আজ যে নৈপূণ্য দেখিয়েছেন তা এক কথায় অসাধারণ। ব্রাজিলের ১১ জনের বিপক্ষে বলতে গেলে তিনি একাই লড়াই কেরেছেন। ব্রাজিলের মুহুর্মুহু আক্রমণ একাই আটকে দেন কোস্টারিকার এই এক নাম্বার গোলকিপার।

৭১ মিনেটে ডি বক্সের অনেক দূর থেকে গোলের জন্য জোরালো শট নেন নেইমার। কিন্তু তার নেয়া শটটি কোস্টারিকার গোলবারের ঠিক পাশদিয়ে চলে যায়। গোল না পেয়ে জার্সি দিয়ে নিজের মুখটা ঢেকে রাখেন নেইমার।

খেলার ৫৬মিনিটে চলতি বলে জোরালো শট নেন নেইমার। কিন্তু তার নেয়া শটটি বারের উপর দিয়ে চলে যায়। গোল করার সুবর্ণ সুযোগ পেয়েও তা হাতছাড়া করেন ব্রাজিল তারকা।

গোল করার একাধিক সুযোগ পাচ্ছেন ব্রাজিলের ফুটবলাররা। কিন্তু ভাগ্য তাদের ফেবার করছে না বলাই যায়। কোস্টারিকা আক্রমণের চেয়ে অনেকটা ডিফেন্সিভ খেলছে। সেখানে আক্রমণের পর আক্রমণ করেও গোলের দেখা পাচ্ছেন না নেইমার-জেসুসরা।

ব্রাজিল গোল না পেলেও গোলের জন্য যা যা করার তাই করে যাচ্ছেন নেইমাররা। তবে গোল না হলেও কোস্টারিকার বিপক্ষেণ আক্রমণাত্মক ব্রাজিলকে দেখা যাচ্ছে।

প্রথমার্ধ ব্রাজিল ০-০কোস্টারিকা

খেলার শুরুতে ব্রাজিল কিছুটা ছন্দময় থাকলেও সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গুছিয়ে খেলছেন নেইমার-জেসুসরা। কোস্টারিকার জালে মুহুর্মুহু আক্রমণ চালিয়েছেন নেইমাররা। তবে একের পর এক শট নিলেও প্রথমার্ধে গোলের দেখা পাননি জেসুসরা।

দুর্ভাগ্য গ্যাব্রিয়েল জেসুসের

গোল হয়েও হলো না। অফসাইডের কারণে গ্যাব্রিয়েল জেসুসের গোলটি বাতিল হয়ে যায়।খেলার ২৫ মিনিটে অসাধারণ শটে কোস্টারিকার জালে বল জড়িয়ে দেন জেসুস। অবশ্য তার আগেই সংকেত দেয়া হয় অফসাইডের। দুর্ভাগ্য জেসুসের।

রাশিয়া বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ১-১ ড্র করে এমনেতেই চাপের মধ্যে আছে ব্রাজিল। তাছাড়া বিশ্বকাপে যেভাবে অঘটন ঘটছে তাতে চিন্তিত ব্রাজিল কোচ তিতে। কোচের চিন্তা আরও বাড়িয়ে দিয়েছিলেন নেইমার। তবে সব শঙ্কা কাটিয়ে খেলছেন তিনি।

অনুশীলনে চোট পাওয়ায় দানিলোকে ছাড়াই কোস্টারিকার বিপক্ষে খেলতে হচ্ছে ব্রাজিলকে।

ব্রাজিল একাদশ: আলিসন, থিয়াগো, মিরান্দা, মার্সেলো, কাসেমিরো, পাউলিনিয়ো, ফিলিপে, কৌতিনিয়ো, উইলিয়ান, নেইমার, গাব্রিয়েল জেসুস।

কোস্টারিকা একাদশ : কেইলর নাভাস (গোলরক্ষক), জনি অ্যাকোস্টা, গিয়ানসারলো গঞ্জালেজ, অস্কার দুয়ার্তে, ব্রায়ান অভিয়েদো, ক্রিশ্চিয়ান গ্যাম্বোয়া, সেলসো বোর্গেস, ব্রায়ান রুইজ (অধিনায়ক), ডেভিড গুজম্যান, ইয়োহান ভেনেগাস, মার্কো ইউরেনা।

নিউজবিডি৭১/আর/ ২২ জুন , ২০১৮




দুই বছরের মধ্যেই বিশ্বের অন্যতম সেরা স্টেডিয়াম বাংলাদেশে

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : ২ বছরের মধ্যেই বিশ্বের অন্যতম সেরা স্টেডিয়াম বাংলাদেশে! পূর্বাচলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে স্টেডিয়ামের তৈরির জমি প্রতীকী মূল্যে পাবার ব্যাপার আশাবাদী বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি জানিয়েছেন, জমি সংক্রান্ত জটিলতা সমাধানের পথে। আগামী দুই বছরের মধ্যে পূর্বাচলে স্টেডিয়াম নির্মাণ করে ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্ব আসরের যৌথ আয়োজক হতে চায় বাংলাদেশ। ৮শ’ কোটি টাকা ব্যয়ে বিশ্বের অত্যাধুনিক এই স্টেডিয়াম নির্মাণের মহাপরিকল্পনা রয়েছে বিসিবি’র।

পূর্বাচলে স্টেডিয়াম নির্মাণ হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে। এ নিয়ে বড় পরিকল্পনা ক্রিকেট বোর্ডের। কিন্তু জমি নিয়ে বেশ জটিলতা ছিল। তবে, বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলছেন, অনেকটাই সমাধানের পথে জমি সংক্রান্ত জটিলতা। পূর্বাচলে প্রতীকী মূল্যে স্টেডিয়াম নির্মাণের প্রায় ৩৭ একর জমি পেলে ৮শ’ কোটি টাকা ব্যয়ে বিশ্বমানের স্টেডিয়াম তৈরি করবে ক্রিকেট বোর্ড।

বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘বিনামূল্যে যদি আমরা পেয়ে যাই…, যেটা পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। কারণ এভাবেই ফাইলটা এসেছে। কিছু অগ্রগতি হয়েছে। ক্রীড়া মন্ত্রণালয় থেকে সেদিন আমাদের ডেকেছিল। তারা বলেছে, এই জায়গাটা আমাদের নামে ট্রান্সফার করে দেয়ার জন্য তারা প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠাচ্ছেন। আমার জানা মতে, কয়েকদিন আগে প্রধানমন্ত্রীর কাছে একটা সারসংক্ষেপও পাঠানো হয়েছে।’

৬০ হাজার আসনের এই স্টেডিয়াম হবে বিশ্বমানের। থাকবে অত্যাধুনিক একাডেমি, জিম, সুইমিংপুল, ইনডোর ও আউটডোর মাঠ। এছাড়াও অতিথি দলের নিরাপত্তা আর যানজটের ব্যাপারটি মাথায় রেখে পাঁচতারা হোটেল’ও করবে বিসিবি।

‘একটা একাডেমি করবো যেখানে সারা বাংলাদেশ থেকে ছেলে-মেয়েরা এসে এখানে প্রাকটিস করতে পারে। পঞ্চাশ থেকে ষাট হাজার দর্শক ধারণক্ষমতার একটা অত্যাধুনিক স্টেডিয়াম করবো যেখানে সব সুযোগ সুবিধা থাকবে। সাধারণ বিশ্বের সেরা স্টেডিয়ামগুলোতে গেলে যেমনটা দেখা যায় তেমনটা থাকবে।’ বলছিলেন নাজমুল হাসান পাপন।

বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকদের চমকপ্রদ খবর দিলেন বিসিবি বস। স্টেডিয়াম নির্মাণ হলে ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্ব আসরের যৌথ দেশ হবার চেষ্টা করবে বাংলাদেশ।

বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আমরা চাচ্ছি, ২০২১ সালের বিশ্বকাপটা ধরার জন্য। তখন যদি কোনো সুযোগ থাকে তাহলে কিছু খেলা আমাদের এখানে আনা যায় কিনা।’

আইসিসি অনুমোদিত ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্ব আসরের একক আয়োজক ভারত। তাই বিসিসিআই আন্তরিক হলেই ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্ব আসরের যৌথ আয়োজক হতে পারবে বাংলাদেশ।

নিউজবিডি৭১/আর/ ২২ জুন , ২০১৮




ম্যারাডোনা গ্যালারীতে অঝোরে কাঁদলেন

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে বিধ্বস্ত করে ঐতিহাসিক জয় পেয়েছে ক্রোয়েশিয়া। ম্যাচের ৮০ মিনিটে অসাধারণ নৈপুণ্যে আর্জেন্টাইন রক্ষণভাগকে বোকা বানিয়ে ক্রোয়েশিয়ার মিডফিল্ডার লুকা মদ্রিচ অসাধারণ গোল করেন।

রিয়াল মাদ্রিদের এ তারকা লুকা মদ্রিচের করা এ শটটি ফুটবল বিশ্ব অনেক দিন মনে রাখবে। আর ইনজুরি টাইমের প্রথম মিনিটে লক্ষ্যভেদ করে শেষ পেরেকটি ঠুকেন মেসির বার্সা সতীর্থ ইভান রাকিটিচ। এসময় টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনা তার উত্তরসূরীদের এমন লজ্জাজনক পরিণয় দেখে গ্যালারিতে কাঁদছেন। দুই হাত দিয়ে চোখ মুছছেন।

প্রসঙ্গত, আর্জেন্টিনার বাঁচা-মরার লড়াইয়ে জয় তো দূরের কথা কোনো প্রতিদ্বন্দ্বিতাও গড়ে তুলতে পারেনি সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন এ দলটি। শেষ পর্যন্ত ৩-০ গোলের হারে মাঠ ছাড়তে হয় আলবিসেলেস্তেদের।

এর আগে নিঝনি নভোগরদ স্টেডিয়ামে শুরুটা আক্রমণাত্মক করে আর্জেন্টিনা। শুরু থেকেই নিজেদের দখলে বল রেখে একের পর এক আক্রমণ চালায় মেসিরা। মাঠ সরব হয় আর্জেন্টাইন সমর্থকদের উচ্ছ্বাসে। মেসিরা বেশ কয়েকটি ভালো সুযোগ পেলেও কোনো কাজে লাগাতে পারেনি। ম্যাচের ৩০ মিনিটের মাথায় সবচেয়ে বড় সুযোগ পান এনজো পেরেজ। কিন্তু ফাঁকায় বল পেলেও জালে জড়াতে পারেননি তিনি।

এবার পাল্টা আক্রমণ শুরু করে ক্রোয়েশিয়া। মিনিট তিনেক পর কাউন্টার অ্যাটাকে দারুণ সুযোগ তৈরি করে ক্রোয়েশিয়া। কিন্তু মারিও মানজুকিচের ব্যর্থতায় সাফল্যের মুখ দেখেনি দলটি। ক্রোয়াটরা সবচেয়ে বড় সুযোগ পায় বিরতির খানিক আগে। গোলরক্ষককে একা পেয়েও ঠিকানায় বল পাঠাতে পারেননি রেবিক। বিরতির পর যেন দায়ই শোধ করেন তিনি। ৫৩ মিনিটে নিশানাভেদ করে ক্রোয়েশিয়াকে লিড এনে দেন রেবিক।

অবশ্য এর খানিক আগেই সুবর্ণ সুযোগ পায় আর্জেন্টিনা। নিকোলাস তাগলিয়াফিকোর অ্যাসিস্ট পান সার্জিও আগুয়েরো। আরামসে মিস করেন তিনি।

আর্জেন্টাইন সমর্থকদের সবচেয়ে বেশি হতাশ করেছে গোলরক্ষক ও রক্ষণভাগের খেলোয়াড়রা। ক্রোয়েশিয়ানদের মুহুর্মূহু আক্রমণে তারা ছিলেন অনেকটা অগোছালো। আর বিশ্ব ফুটবলের বিস্ময়কর তারকা লিওনেল মেসিও ছিলেন অনেকটা নিষ্প্রভ।যার কারণে শোচনীয় হার নিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায়ের শংকা বেজে উঠেছে।

নিউজবিডি৭১/আর/ ২২ জুন , ২০১৮




আর্জেন্টিনার কোচ সাম্পাওলি হারের দায় নিলেন

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করেছিল আর্জেন্টিনা। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে সেরকম কিছু হলেও হয়তো মান বাঁচত দলটির। সেখানে ৩-০ গোলে হেরে লজ্জার শিকার সাদা-আকাশি জার্সিধারীরা। যে যার মতো পারছেন খেলোয়াড়, কোচিং স্টাফদের ধুয়ে দিচ্ছেন। তবে সব দোষ মাথা পেতে নিলেন কোচ হোর্হে সাম্পাওলি। আর্জেন্টিনার যে একাদশ মাঠে নেমেছিল, তাই বেখাপ্পা ঠেকেছে সবার কাছে।

ছিলেন না অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। তার জায়গায় যাকে খেলানোর গুঞ্জন চাউর হয়েছিল, সেই ক্রিস্টিয়ান পাভনকে নামানো হয়নি। হাতে পাওলো দিবালার মতো অস্ত্র থাকলেও তাকে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে দেখা যাচ্ছে না। ডিফেন্সের প্রতি নজর নেই। নেই মাঝমাঠ চাঙ্গা করার কোনো উদ্যোগ। এত অগোছালো পরিকল্পনা কেন? আত্মসমর্পনের সুরে সাম্পাওলি বলেন, সিদ্ধান্ত নেয়ার সর্বময় কর্তা আমিই ছিলাম। সব সিদ্ধান্ত একা নিয়েছি। তবে আমার সবকিছুই ভুল ছিল।

ম্যাচটি ঘিরে অনেক আশা ছিল। সব উবে গেছে। পরাজয়ের তিক্ত যন্ত্রণা অনুভব করছি। এমন পরিস্থিতির জন্য আমিই দায়ী। দলে রয়েছেন লিওনেল মেসির মতো ফুটবলার। অথচ তাকে খুজেঁ পাওয়া যাচ্ছে না। খুজেঁ পাওয়া যাবে কী করে? মিডফিল্ড থেকে তো বলই সরবরাহ পাননি তিনি। আর্জেন্টিনা কোচ বলেন, আমরা এখনো দল হয়ে উঠতে পারিনি। কোনো জায়গায় কোনো সমন্বয় নেই। আমরা তাদের হারাতে চেয়েছিলাম। তবে প্রথম গোল হজমের সঙ্গে আমরা হেরে গেছি।

কারণ, এরপর ছেলেরা মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিল। তিনি বলেন, লজ্জার পারফরম্যান্স বলেন, আর যাই বলেন, এর দায় একজন নেতার। অনুসারীরা দেখানো পথ বুঝতে না পারলে দায়ভার নেতাকেই নিতে হবে। হয়তো শিষ্যরা আমার রণকৌশল বুঝতে পারেনি। আমি ক্রোয়েশিয়াকে ঠিকমতো পড়তে পারিনি। কর্তা হিসেবে সব দায় আমাকে নিতে। সবকিছুর জন্য আমিই দায়ী।

নিউজবিডি৭১/আর/ ২২ জুন , ২০১৮




আজও নেইমারকে নিয়েই মাঠে নামছে ব্রাজিল

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : নেইমারের ইনজুরি নিয়ে উত্কণ্ঠায় ব্রাজিলসহ পুরো ফুটবল বিশ্ব। উত্কণ্ঠায় বাংলাদেশে ব্রাজিলের সমর্থকরাও। ঘুরে ফিরে বার বার প্রশ্ন উঠছে আজ নেইমার খেলবেন তো? গ্রুপ পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় খেলায় আজ কোস্টারিকার বিপক্ষে মাঠে নামবে ব্রাজিল। সমীকরণটা তাই অনেকটা এরকম, আজ জিততে হবে। প্রথম খেলায় সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে (১-১) ড্র করে ব্যাকফুটে ব্রাজিল। দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত করতে হলে জয় ছাড়া অন্য কিছু ভাবার উপায়ও নেই তাদের।

কোস্টারিকার সঙ্গে ব্রাজিলের পয়েন্ট হারানোর কোনো কারণ দেখছেন না কোচ তিতে। মরিয়া হয়ে লড়াই করে ব্রাজিল সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটাতে চান তিনি। কিন্তু গোল্ডেন বুট পাওয়া তারকা নেইমার খেলবেন কিনা তা নিয়ে ভক্তদের মনে শঙ্কা রয়েই গেছে। সেই প্রশ্নেরও জবাব প্রস্তুত তিতের মুখে। নেইমারের জায়গা পূরণ করে খেলানোর মত দলটাকে তৈরি রেখেছেন তিতে। কারণ তিনি তো জানেন নেইমারকে মাঠে নামানোর শেষ পর্যন্ত চেষ্টা করা হবে। নেইমার মাঠে নামলে দল হবে অন্য রকম শক্তিশালী।

কাল রাতে সেন্ট পিটারবার্গের স্টেডিয়ামে সংবাদ সম্মেলনে প্রথম প্রশ্নই উঠল নেইমার খেলতে পারবে কিনা। কোচ তিতে বলে উঠলেন হ্যাঁ নেইমার খেলবে। জানিয়ে দিলেন সব সংশয় কাটিয়ে ওঠার কথা। ব্রাজিলীয়ান সাংবাদিকরা তাদের পর্তুগীজ ভাষা ব্যবহার করলেন। আর সেটা রুপান্তর হয় চারটি ভাষায়। সঙ্গে সঙ্গে ইথারে ছড়িয়ে পড়ল ফুটবল দুনিয়ায়। কোচের কণ্ঠে তাল মিলিয়েছেন অধিনায়কের দায়িত্ব ফিরে পাওয়া ডিফেন্ডার থিয়েগো সিলভা। অনুশীলনে নামার আগে কোচের সঙ্গে মাইক্রোবাসে চড়ে থিয়েগো সিলভাও এলেন সংবাদ সম্মেলনে। খুব বেশি সময় থাকেননি। অনুশীলনের জন্য তাকে চলে যেতে হয়েছিল। তবে যাওয়ার আগে ব্রাজিল সমর্থকদের উত্কণ্ঠা কমিয়ে দিতে জানিয়ে গেলেন নেইমার খেলবেন। কোচ এবং অধিনায়ক দুজনেরই একই সুর আগের খেলায় সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে খেলা সেরা একাদশই আজ কোস্টারিকার বিপক্ষে মাঠে নামবে।

ড্রেসিং রুম নিয়ে কথা উঠলে থিয়েগো সিলভা জানিয়ে দেন খুব ভালো অবস্থায় রয়েছেন তারা। গত বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে কলম্বিয়ান ফুটবলার জুনিগোর দেয়া আঘাতে ব্যথা পেয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছিল নেইমারকে। তার বিদায়ে অনেকটাই ফিকে হয়ে গিয়েছিল ব্রাজিলের ছয় নম্বর ট্রফি জয়ের স্বপ্ন। এবারও বিশ্বকাপ ফুটবলের আগে নেইমারকে চোটের কবলে পড়তে হয়েছিল। চোট কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলে নিজেদের প্রথম খেলায় সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে নেমে চোট পেয়েছেন ব্রাজিল ফুটবলের বরপুত্র নেইমার। সুইজারল্যান্ডের খেলোয়াড়রা নেইমারকে আটকাতে ফাউলের পর ফাউল করে গেছেন। দলের অনুশীলনে নামতে গেলে ১০ মিনিটের মাথায় তাকে মাঠ ছাড়তে হয়। শেষ পর্যন্ত গতকাল ব্রাজিলের আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে কোচ তিতে এবং অধিনায়ক থিয়েগো সিলভা জানিয়ে গেলেন নেইমার খেলবেন।

থিয়েগো সিলভা আজ কোস্টারিকার বিপক্ষে আর্মব্যান্ড হাতে মাঠে নামবেন। সুইসদের বিপক্ষে ডিফেন্ডার মার্সেলো অধিনায়ক ছিলেন। থিয়েগো সিলভা ব্রাজিল বিশ্বকাপেও অধিনায়ক ছিলেন। কিন্তু হলুদ কার্ডের কারণে সেমিফাইনালে জার্মানির বিপক্ষে খেলতে পারেননি। সেই ঐতিহাসিক ম্যাচে জার্মানি ৭-১ গোলে ব্রাজিলকে হারিয়েছিল। তবে পরের খেলায় ২৭ জুন সার্বিয়ার বিপক্ষে অধিনায়ক থাকবেন কিনা নিশ্চিত না। কারণ প্রতি ম্যাচে অধিনায়ক পরিবর্তন করছে ব্রাজিল কোচ, এটা তার কৌশল।

নিউজবিডি৭১/আর/ ২২ জুন , ২০১৮




বাজে খেলার কারণ কি মেসির?

ডেস্ক রিপোর্ট
নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : ক্রোয়েশিয়ার কাছে ৩-০ গোলে হারের পর হতাশ লিওনেল মেসির ড্রেসিং রুমে হেঁটে যাওয়ার ছবিটিকে ২০১৮ বিশ্বকাপের অন্যতম প্রতীকী ছবিগুলোর একটি হিসেবে বলা হচ্ছে।

পাঁচবারের বিশ্বসেরা খেলোয়াড় দুই ম্যাচে কোনো গোল করতে পারেননি। এমনকি আইসল্যান্ডের সাথে একটি পেনাল্টিও মিস করেছেন। ২০০২ এর পর প্রথমবার বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নেয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে আর্জেন্টিনার।

৩০ বছর বয়সী মেসি আরেকটি বিশ্বকাপ হয়তো খেলতে পারবেন। কিন্তু অনেক ফুটবল বোদ্ধার মতেই রাশিয়া বিশ্বকাপেই আর্জেন্টিনার হয়ে কোনও মেজর শিরোপা জেতার শেষ সুযোগ তার সামনে।

ঘরোয়া লিগ ও কাপের ‘ডাবল’ জিতলেও বার্সেলোনায় শেষ মৌসুমটা খুব একটা ভাল যায়নি মেসির। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে টানা তৃতীয়বারের মত বিদায় নিতে হয় তাদের। আর এই তিনবারই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের হাতে ওঠে শিরোপা।

মেসির এই মৌসুমের হতাশাজনক পারফরমেন্সের অনেক কারণ থাকতে পারে, যেগুলোর একটি তালিকা তৈরি করেছেন বিবিসি’র ক্রীড়া সাংবাদিকরা। সেটি ঢাকাটাইমস এর পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

১. তিনি শারীরিকভাবে ক্লান্ত

২০১৭-১৮ ইউরোপীয় মৌসুমে ৫৪টি ম্যাচ খেলেছেন মেসি। ২০১৪-১৫ মৌসুমের পর যা সর্বোচ্চ। পরিসংখ্যান ওয়েবসাইট ট্রান্সফারমার্কট এর তথ্য অনুযায়ী গত মৌসুমে মোট ৪,৪৬৮ মিনিট খেলেছেন তিনি আর গড়ে প্রতি ম্যাচে ৮২.৭ মিনিট মাঠে ছিলেন। মৌসুম শেষে বার্সেলোনার হয়ে ৪৫টি গোল আর ১৮টি অ্যাসিস্ট করেন মেসি।

২. ছোট ইনজুরিতে ভুগছেন তিনি

২০১৮’র এপ্রিলে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের সূত্রের বরাত দিয়ে দেশটির পত্রিকা ক্লারিন প্রতিবেদন প্রকাশ করে যে ডান পায়ের উরুর মাংসপেশিতে সামান্য চোট রয়েছে মেসির, যার কারণে দৌড়ানো ও গতি পরিবর্তন করতে কিছুটা সমস্যা হচ্ছে তার।

বিশ্বকাপের আগে ইতালি আর স্পেনের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে মেসি না খেললে বিষয়টি আলোচনায় আসে।

৩. আর্জেন্টিনা দলের বাজে পারফরমেন্স

রাশিয়া বিশ্বকাপের দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাইপর্বে আর্জেন্টিনার পারফরমেন্স ছিল দারুণ হতাশাজনক। নানা সমীকরণ শেষে বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে বিশ্বকাপের মূলপর্বে খেলা নিশ্চিত করতে সক্ষম হয় তারা।

বাছাইপর্বে সাত গোল করে মেসি আর্জেন্টিনার সর্বোচ্চ স্কোরার হলেও সমর্থক ও গণমাধ্যমের ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়তে হয় তাকে।

গত বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা ফাইনাল খেললেও তাদের শেষ বিশ্বকাপ বিজয় ছিল ১৯৮৬ সালে। ২০০৪ আর ২০০৮ এ পরপর দু’বার অলিম্পিক শিরোপা জিতলেও, ১৯৯৩ সালের কোপা আমেরিকার পর গত ২৫ বছরে কোনো বড় টুর্নামেন্টের শিরোপা জিততে পারেনি তারা।

৪. রোনালদোর সাথে তুলনার মানসিক চাপ

গত প্রায় এক দশক ধরে বিশ্ব ফুটবলে মেসির একমাত্র তুলনা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এবারের বিশ্বকাপে মেসির ঠিক বিপরীত ফর্মে রয়েছেন তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী।
স্পেনের বিপক্ষে দুর্দান্ত এক হ্যাট-ট্রিক করে রোনালদোর রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরু হয়, যেখানে ফ্রি কিক থেকে নেয়া রোনালদোর তৃতীয় গোলটি বিশ্বকাপের ইতিহাসের অন্যতম স্মরণীয় গোলগুলির একটি হয়ে থাকবে। দ্বিতীয় ম্যাচেও রোনালদোর একমাত্র গোলেই মরক্কোকে হারায় পর্তুগাল।

এবারের টুর্নামেন্টে রোনালদো যেখানে অপ্রতিরোধ্য ফর্ম প্রদর্শন করছেন, সেখানে পুরো আসরে মেসির বলার মত মুহূর্ত বলতে আইসল্যান্ডের সাথে পেনাল্টি মিস।

আর মেসি যা এখনও করতে পারেননি দু’বছর আগে ইউরো ২০১৬’তে দলকে শিরোপা জিতিয়ে তাই করে দেখিয়েছেন রোনালদো।

আর্জেন্টিনার জন্য সমীকরণ

ক্রোয়েশিয়ার কাছে ৩-০ ব্যবধানে হারের পর এখন নকআউট রাউন্ডে ওঠার জন্য ভাগ্যের ওপর নির্ভর করতে হবে আর্জেন্টিনাকে।

প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডের সাথে ১-১ গোলে ড্র করায় মঙ্গলবার নাইজেরিয়ার সাথে শেষ ম্যাচে বড় ব্যবধানে জয়ও আর্জেন্টিনার পরের রাউন্ডে উত্তরণ নিশ্চিত করতে পারবে না।
শুক্রবার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আইসল্যান্ড নাইজেরিয়াকে হারালে শেষ ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার সাথে ড্র করলেই নক আউট রাউন্ড নিশ্চিত হবে তাদের। অর্থাৎ পরের দুই ম্যাচে আইসল্যান্ড একটি ড্র ও একটি জয় পেলেই নিশ্চিত হবে আর্জেন্টিনার বিদায়।

তবে নাইজেরিয়াকে হারানোর পর আইসল্যান্ড ক্রোয়েশিয়ার কাছে হারলে সুযোগ থাকবে আর্জেন্টিনার সামনে। সেক্ষেত্রে শেষ ম্যাচে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে বড় ব্যবধানে জিততে হবে তাদের। আর আইসল্যান্ড নাইজেরিয়ার কাছে হারলেও শেষ ম্যাচে বড় ব্যবধানেই জয়ের লক্ষ্য রাখতে হবে আর্জেন্টিনাকে।

কারণ শেষ ম্যাচে আইসল্যান্ড ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে দিলে এবং আর্জেন্টিনা নাইজেরিয়ার বিপক্ষে জয় পেলে আর্জেন্টিনা ও আইসল্যান্ড দুই দলেরই পয়েন্ট সমান হবে।

তখন গোল ব্যবধানে নির্ধারিত হবে গ্রুপ রানার আপ। ক্রোয়েশিয়ার কাছে তিন গোল খাওয়ায় গোল ব্যবধানের হিসেবেও এখন পিছিয়ে রয়েছে আর্জেন্টিনা। আইসল্যান্ড তাদের পরের দু’টি ম্যাচ ড্র করলে বা হারলে নিজেদের শেষ ম্যাচে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে জিতলেই নক আউট রাউন্ড নিশ্চিত হবে আর্জেন্টিনার।

আর্জেন্টিনার হতাশার ম্যাচ পরিসংখ্যান

# বিশ্বকাপে দক্ষিণ আমেরিকান প্রতিপক্ষের সাথে পঞ্চম ম্যাচে এসে প্রথম জয় পেল ক্রোয়েশিয়া। লাতিন আমেরিকান দলের বিপক্ষে এর আগে চারবারই হেরেছিল তারা।

# ১৯৫৮ বিশ্বকাপে চেকোস্লোভাকিয়ার কাছে ৬-১ গোলে হারের পর বিশ্বকাপের প্রথম পর্বে ৬০ বছরে আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় হার এটি।

# ১৯৭৪ এর পর এই প্রথম বিশ্বকাপের প্রথম দুই ম্যাচে জয় বঞ্চিত থাকলো আর্জেন্টিনা।

# বিশ্বকাপে নিজেদের শেষ চার ম্যাচে জয় পেতে ব্যর্থ হলো আর্জেন্টিনা (ড্র ২টি, হার ২টি) যা তাদের বিশ্বকাপ ইতিহাসে দীর্ঘতম সময় জয় ছাড়া থাকার রেকর্ড।

# আইসল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে লিওনেল মেসি ১১টি শট নিয়েছিলেন। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের ৬৪ মিনিটের আগ পর্যন্ত গোলপোস্টে কোনো শট নিতে পারেননি তিনি।

# এবারের বিশ্বকাপে যে কোনো খেলোয়াড়ের চেয়ে বেশি শট নিয়েছেন মেসি (১২টি)। কিন্তু গোল করতে পারেননি কোনো প্রচেষ্টাতেই।–ঢাকাটামস

নিউজবিডি৭১/আর/ ২২ জুন , ২০১৮




আর্জেন্টিনার জালে ক্রোয়েশিয়ার ৩ গোল

নিউজবিডি৭১ডটকম
ঢাকা : সৌদি আরব পবিত্র হজকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের হাতিয়ারে পরিণত করেছে বলে অভিযোগ তুলেছে সিরিয়ার ওয়াকফ মন্ত্রণালয়। এক বিবৃতিতে মন্ত্রণালয় বলেছে, সৌদি আরব গত সাত বছর ধরে সিরিয়ার নাগরিকদেরকে হজ পালন করতে দিচ্ছে না।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা ওআইসি এবং সৌদি আরবের হজ মন্ত্রণালয়ের কাছে বার বার আবেদন জানিয়েও এ সমস্যার সমাধান হয় নি। রাজনৈতিক কারণেই সৌদি আরব সিরিয়ার মুসলমানদেরকে হজের সুযোগ দিচ্ছে না বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

এর আগে সৌদি আরবের বিরুদ্ধে একই ধরনের অভিযোগ তুলেছে কাতার। দেশটির জাতীয় মানবাধিকার সংস্থা (এনএইচআরসি) বলেছে, হজকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য পূরণের হাতিয়ার বানিয়েছে রিয়াদ।

সৌদি সরকার সিরিয়া ও ইয়েমেনসহ কয়েকটি দেশের নাগরিকদেরকে হজ পালনে বাধা দিচ্ছে। সৌদি নীতির বিরোধিতা করার কারণে এ ধরণের পদক্ষেপ নিয়েছে তারা।#পার্সটুডে

নিউজবিডি৭১/আর/ ২২ জুন , ২০১৮